ভারতে আশ্রয় চাইলেন ইমরানের দলের এমএলএ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৫:০৩ পিএম, ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৯

পাকিস্তানে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের অত্যাচার বাড়ার দাবি করে দেশটির পাঞ্জাব প্রদেশের বাসিন্দা ও প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের দল পিটিআই থেকে নির্বাচিত সাবেক এক এমএলএ ভারতের কাছে রাজনৈতিক আশ্রয়ের আবেদন করেছেন। ভারতীয় গণমাধ্যমে এ খবর প্রকাশিত হয়েছে।

পাঞ্জাবের খান্না এলাকার বাসিন্দা বলদেব কুমার সিং ইমরান খানের দল পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই) থেকে প্রাদেশিক পরিষদের সাবেক নির্বাচিত প্রতিনিধি (এমএলএ)। তিনি সপরিবারের ভারতের কাছে রাজনৈতিক আশ্রয় চেয়েছেন।

গত এক মাস ধরে দুই সন্তান এবং স্ত্রীকে নিয়ে পাঞ্জাবের খান্নায় শ্বশুরবাড়িতে আছেন বলদেব। মঙ্গলবার সাংবাদিকদের মাধ্যমে ভারত সরকারের কাছে রাজনৈতিক আশ্রয়ের আবেদন করেন তিনি। শিখ সম্প্রদায়ের ৪৩ বছর বয়সী এই নেতা খাইবার পাখতুনখোয়ার বারিকোটের এমএলএ ছিলেন।

মঙ্গলবার সাংবাদিকদের বলদেব বলেন, ‘শুধু সংখ্যালঘুরাই নয়, মুসলিমরাও সেখানে নিরাপদ নয়। আমরা পাকিস্তানে খুব সমস্যার মধ্যে বেঁচে আছি। আমি এখানে সজ্ঞানে এসেছি। আমি ভারতের প্রধানমন্ত্রী মোদির কাছে রাজনৈতিক আশ্রয় এবং আমি ও আমার পরিবারের নিরাপত্তা চাইছি।’

বলদেব জানালেন, তার ভাই ও অন্য আত্মীয় স্বজনরাও পাকিস্তানে বসবাস করছেন। তাদের জন্য উদ্বেগ প্রকাশ করে মোদি সরকারের কাছে বলদেবের আবেদন করেছেন, ‘বহু হিন্দু এবং শিখ পরিবার ভারতে চলে আসতে চাইছে। ওখানে সংখ্যালঘুদের কোনও সম্মান নেই। গুরুদ্বারগুলোর অবস্থাও খারাপ।

পিটিআইয়ের সাবেক এই এমএলএ-র দাবি, ‘অনেককে ধর্মান্তরিত করা হচ্ছে। সম্প্রতি এক শিখ তরুণীর সঙ্গে এমনটা ঘটেছে। ভারত সরকারের উচিত এমন প্যাকেজ ঘোষণা করা যাতে পাকিস্তানে বসবাসকারী হিন্দু এবং শিখরা বারতে আশ্রয় পায়।’

এসএ/এমএস