হিন্দিকে জাতীয় ভাষা করার দাবি অমিত শাহ'র

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০১:২২ পিএম, ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯

হিন্দিকে জাতীয় ভাষা করার দাবি জানিয়েছেন ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। শনিবার হিন্দি দিবস উপলক্ষে এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, দেশের সর্বাধিক কথিত ভাষা হল হিন্দি। আর এই ভাষা দেশের মানুষের মধ্যে একতা তৈরির ক্ষমতা রাখে। তাই এই ভাষাকেই জাতীয় ভাষা করা উচিত বলে মন্তব্য করেন তিনি।

তবে তিনি একথাও স্বীকার করেছেন যে, ভারত বহু ভাষাভাষী মানুষের দেশ এবং প্রতিটি ভাষারই নিজস্ব গুরুত্ব রয়েছে। তার পরেও হিন্দির গুরুত্ব উল্লেখ করে দেশের জাতীয় ভাষা হিসাবে ঘোষণা করার প্রস্তাব জানান তিনি।

এক টুইট বার্তায় অমিত শাহ বলেন, হিন্দিই পারে দেশকে একসূত্রে গাঁথতে। প্রতি বছর ১৪ সেপ্টেম্বর হিন্দি ভাষা দিবস হিসেবে পালিত হয়ে আসছে। ১৯৪৯ সালের এই দিনেই ভারতের গণপরিষদ হিন্দিকে দেশটির সরকারি ভাষা হিসেবে গ্রহণ করে। ওই দিনের তাৎপর্য তুলে ধরতেই প্রতি বছর এই দিনটি পালন করা হয়। দেবনাগরী লিপিতে রচিত হিন্দি, দেশের ২২টি নির্ধারিত ভাষার একটি। তবে হিন্দি হলো কেন্দ্রীয় সরকারের দু'টি সরকারি ভাষার মধ্যে একটি, অন্যটি হল ইংরেজি ভাষা।

ভারতের জাতীয় পর্যায়ে দুটি সরকারি ভাষা এবং রাষ্ট্রীয় স্তরে ২২টি ভাষার স্বীকৃত থাকলেও দেশটিতে এখনও কোনও জাতীয় ভাষা নেই। অমিত শাহ হিন্দিকে জাতীয় ভাষা করার কথা উল্লেখ করে বলেন, ভারত বহু ভাষাভাষীর দেশ এবং প্রতিটি ভাষারই নিজস্ব গুরুত্ব থাকলেও বিশ্বব্যাপী পরিচিতির জন্য একটি অভিন্ন ভাষার প্রয়োজন।

তিনি আরও বলেন, বর্তমানে যদি এমন একটিও ভাষা থাকে যা জাতিকে ঐক্যবদ্ধ করার ক্ষমতা রাখে তবে তা হলো হিন্দি। এই ভাষাটি ভারতের সর্বাধিক ব্যবহৃত এবং সহজবোধ্য ভাষা।

টিটিএন/এমএস