৯/১১-এ ৯টা ১১ মিনিটে জন্ম, ওজন ৯.১১ পাউন্ড

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৮:৫৪ পিএম, ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯

যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে সবচেয়ে ন্যাক্কারজনক সন্ত্রাসী হামলার ১৮ তম বার্ষিকী ছিল গত ১১ সেপ্টেম্বর। ২০০১ সালে টুইন টাওয়ারে ওই হামলায় ৩ হাজার মানুষ নিহত হয়। ঘটনাটি মূলত নাইন ইলেভেন বা ৯/১১ নামে পরিচিত। তবে একইদিনে জন্ম নেয়া এক শিশু শিরোনাম হয়েছে অন্য কারণে। কারণ সেদিন রাত ৯টা ১১ মিনিটে জন্ম নেয়া ওই শিশুর ওজনও যে ৯ পাউন্ড ১১ আউন্স।

মার্কিন গণমাধ্যমগুলোর প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে, যুক্তরাষ্ট্রের টেনেসি অঙ্গরাজ্যের জার্মান টাউনের মেথোডিস্ট লেবোনা হাসপাতালে ৯/১১ বার্ষিকীর রাতে শিশুটির জন্ম হয়। নাম রাখা হয়েছে লিটল ক্রিস্টিনা ব্রাউন। কন্যাসন্তান জন্মদানকারী মা তার মেয়ের জন্মকে ‘অলৌকিক কাণ্ড’হিসেবে অভিহিত করেছেন।

বিবিসির প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, মায়ের নাম কামিট্রিয়োনি মুর ব্রাউন। তিনি মেয়ের জন্ম নিয়ে বলেছেন, ‘বিধ্বংস ও বিনাশের ভেতর থেকে নতুন এক জীবন নিয়ে সে এসেছে। অপারেশন থিয়েটারের কর্মীরা বাচ্চাটির জন্ম হওয়ার পর সময় দেখে এবং ওজন রেকর্ড করে বিস্মিত হয়ে পড়েন।

শিশুটির বাবা জাস্টিন ব্রাউন বলেন, ‘শুনলাম চিকিৎসকেরা জন্মের সময়টি ৯/১১ বলে ঘোষণা করলো, এরপর তারা যখন ক্রিস্টিনার ওজন করলো, আমরা বিস্ময়সূচক ধ্বনি শুনলাম। পরে জানলাম ক্রিস্টিনার ওজন ৯/১১, জন্মের সময় ৯টা ১১ মিনিট আর তারিখ ৯/১১। বিস্ময়টা সেটা নিয়েই।’

ব্রিটিশ দৈনিক ডেইলি মেইলের অনলাইন প্রতিবেদন অনুযায়ী, কামিট্রিয়োনি মুর ব্রাউন নামে এক প্রসূতিকে যখন হাসপাতালের ডেলিভারি কক্ষে নেয়া হয় তখন বাজে রাত ৮টা ৫৫মিনিট। পরে রাত ৯টা ১১ মিনিটে ক্রিস্টিনার জন্ম দেন তিনি।

আমেরিকার ইতিহাসে সবচেয়ে ভয়াবহ সন্ত্রাসী হামলার ঘটনাটি ঘটেছিল ২০০১ সালের ১১ সেপ্টেম্বর। আঠারো বছর আগের সেই হামলায় নিহতদেরকে গোটা যুক্তরাষ্ট্র যখন শোকের সঙ্গে স্মরণ করছিল তখন ঘটে এই কাকতালীয় ঘটনা। অনেকে নবজাতককে ৯/১১ শিশু নামে ডাকছে।

এসএ/জেআইএম