হেরেই যাচ্ছেন নেতানিয়াহু প্রধানমন্ত্রী হচ্ছেন বেনি গ্যান্তেজ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ১২:৩৬ পিএম, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯

গত পাঁচ মাসের মধ্যে অনুষ্ঠিত দ্বিতীয় নির্বাচনের ভোটগ্রহণ শেষে এখন চূড়ান্ত ফলের অপেক্ষা করছে ইসরায়েল। মঙ্গলবার দেশটির জাতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। এবারের এই নির্বাচনে দেশটির ক্ষমতাসীন প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহুর সঙ্গে বিরোধী দলীয় নেতা ও দেশটির সাবেক সেনাপ্রধান বেনি গ্যান্তেজের তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতার আভাস পাওয়া যাচ্ছে।

দেশটির বিভিন্ন গণমাধ্যমে ইতোমধ্যে বুথ ফেরত জরিপের ফলাফল প্রকাশিত হয়েছে। এতে দেখা যাচ্ছে, ক্ষমতাসীন বেঞ্জামিনকে হারিয়ে ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী হতে যাচ্ছেন মধ্যপন্থী নীল এবং সাদা জোটের বেনি গ্যান্তেজ।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি বলছে, বুথ ফেরত জরিপে দেশটির ক্ষমতাসীন প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহুর নেতৃত্বাধীন ডানপন্থী লিকুদ পার্টি ৩০ থেকে ৩৩ আসনে জয় পেতে পারে। অন্যদিকে তার প্রতিদ্বন্দ্বী দেশটির সাবেক সেনাপ্রধান ও মধ্যপন্থী নীল এবং সাদা জোটের বেনি গ্যান্তেজ ৩২ থেকে ৩৪ আসনে জয়ী হতে যাচ্ছেন।

এর আগে, চলতি বছরের এপ্রিলে দেশটিতে আগাম সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। ওই নির্বাচনে একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে সরকার গঠন করতে ব্যর্থ হয় লিকুদ পার্টি। বুধবার সকালের দিকে বুথ ফেরত জরিপের ফল প্রকাশ শুরু হয়েছে। এই ফল গণমাধ্যমে আসার পর শিগগিরই জোট সরকার গঠনের তৎপরতা শুরু হতে পারে বলে প্রত্যাশা করা হচ্ছে।

বুধবার সকালের দিকে সমর্থকদের উদ্দেশে নেতানিয়াহু বলেছেন, আমরা একটি কঠিন নির্বাচনী প্রচার অতিক্রম করে আসছি। আমরা এখন প্রকৃত ফলাফলের জন্য অপেক্ষা করছি। তবে একটি বিষয় পরিষ্কার। সেটি হচ্ছে ইসরায়েল রাষ্ট্র এই মুহূর্তে একটি ঐতিহাসিক পয়েন্টে অবস্থান করছে। আমরা বিশাল সুযোগ ও চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হয়েছি।

বিরোধীদলীয় নেতা গ্যান্তেজও সমর্থকদের আশার বাণী শুনিয়েছেন। তিনি বলেছেন, আমরা সবাই এখন বাস্তব ফলাফলের জন্য অপেক্ষা করছি। কিন্তু এটা মনে হচ্ছে যে, আমরা আমাদের মিশন সম্পন্ন করেছি। সামনে এগিয়ে যাওয়ার জন্য এখন আমাদের ঐক্য এবং সংহতি প্রয়োজন।

বুথ ফেরত জরিপ কী বলছে?

ইসরায়েলের সরকারি সম্প্রচার মাধ্যমকে ক্যান বুধবার সকালের দিকে বুথ ফেরত জরিপের ফল প্রকাশ করেছে। এতে বলা হয়েছে, ইসরায়েলের পার্লামেন্ট নেসেটের ১২০ আসনের মধ্যে নীল এবং সাদা জোট ৩২ আসন এবং নেতানিয়াহুর লিকুদ পার্টি ৩১ আসনে জয়ী হতে পারে।

এরপরই তৃতীয় স্থানে আছে ইসরায়েলি আরব জয়েন্ট লিস্ট; তারা ১৩ আসনে জয় পেতে পারে। এছাড়া দেশটির সেক্যুলার জাতীয়তাবাদী ইসরায়েল বেইতেনু পার্টি ৯, আল্ট্রা অর্থোডক্স শ্যাস এবং ইউনাইটেড তোরাহ জুডাইজম পার্টি যথাক্রমে ৯ এবং ৮ আসনে জয়ী হতে পারে। বুথ ফেরত জরিপের ফলে ইয়ামিনা পার্টি ৭, বামপন্থী লেবার গেশের ও ডেমোক্রেটিক ইউনিয়ন অ্যালায়েন্স যথাক্রমে ৬ এবং ৫টি আসন পাবে বলে জানানো হয়েছে।

ইসরায়েলি টেলিভিশন চ্যানেল ১২ নিউজ বলছে, নীল এবং সাদা জোট ও লিকুদ পার্টি সমান ৩২ আসনে জয় পাবে। অন্যদিকে চ্যানেল ১৩ বলছে, নীল এবং সাদা জোট ৩২ এবং লিকুদ পার্টি ৩০ আসনে জয়ী হতে পারে।

বুথ ফেরত জরিপের ফল প্রকাশের পর থেকে রাজধানী তেলআবিবে লিকুদ পার্টির কার্যালয়ে নীরবতা নেমে এসেছে। সেখানে রাখা শত শত চেয়ার ফাঁকা পড়ে আছে। কার্যালয়ের বাইরে দলটির অল্প কিছু নেতা কর্মীকে দেখা গেছে বলে বিবিসি জানিয়েছে।

লিকুদ পার্টির পররাষ্ট্রকল্যাণবিষয়ক পরিচালক আলী হাজান বলেন, ইসরায়েলের নির্বাচনে বুথ ফেরত জরিপের ফল অতীতে কখনও মিথ্যা হয়নি। তবে নীল এবং সাদা জোট অত্যন্ত সতর্কতার সঙ্গে আশাবাদ প্রকাশ করেছে। দলটির মুখপাত্র মেলোডি সুচারেউইজ দেশটির ইংরেজি দৈনিক টাইমস অব ইসরায়েলকে বলেছেন, নতুন নেতৃত্ব পেতে যাচ্ছে ইসরায়েল।

এসআইএস/এমকেএইচ