হীরায় মোড়ানো ৭ কোটি টাকার ঘড়ি ছিনিয়ে নিলো চোর

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০১:৪২ পিএম, ১০ অক্টোবর ২০১৯

সিগারেট কেনার জন্য প্যারিসের হোটেল থেকে বাইরে বের হয়ে চোরের কবলে পড়ে ৮ লাখ ৪০ ডলার (৭ কোটি ১১ লাখ ২৮ হাজার ২৬০ টাকা) মূল্যের একটি ঘড়ি খুইয়েছেন এক জাপানি। প্যারিসের পুলিশ বলছে, জাপানি ওই ব্যক্তি রাস্তায় বেরিয়ে আসতেই এক চোর তার হাত চেপে ধরে মূল্যবান ওই ঘড়িটি টান দিয়ে ছিনিয়ে দৌড়ে পালিয়ে যায়।

ফরাসী বার্তাসংস্থা এএফপির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সোমবার রাতে ৩০ বছর বয়সী ওই ভূক্তভোগী ব্যক্তি প্যারিসের পাঁচ তারকা হোটেল ন্যাপোলিয়নের বাইরে বের হয়েছিলেন। পরে তিনি এক ব্যক্তির কাছে সিগারেট চান।

এ সময় চোর জাপানি ওই নাগরিকের হাত চেপে ধরে রিচার্ড মিলের বিরল ও মূল্যবান ঘড়িটি তার হাত থেকে ছিনিয়ে নিয়ে পালিয়ে যায়। হীরার তৈরি বিরল এই ঘড়ি ট্যুরবিলন ডায়মন্ড টুইস্টার নামে পরিচিত; যার বাজারমূল্য ৭ লাখ ৭০ হাজার ইউরো।

উচ্চ মূল্যের এই ঘড়ি অনেকেই এনগেজমেন্টের জন্য কিনে থাকেন। মিলের এই ঘড়ির ভেতরের অংশ অত্যন্ত সৌন্দর্যমণ্ডিত কারুকার্য খচিত। ফরাসী রাজধানী প্যারিসে অনেক সময় চোররা ধনী পর্যটকদের টার্গেট করেন। জাপানি ওই ব্যক্তি প্যারিসে চোরের খপ্পড়ে পড়ে উচ্চমূল্যের সৌখিন ঘড়িটি খুইয়েছেন।

প্যারিসের চ্যাম্প এলিসি অ্যাভিনিউ ও এর আশাপাশের এলাকায় চলতি বছরে সোনা ও হীরায় মোড়ানো এমন উচ্চমূল্যের অন্তত দুই ডজন ঘড়ি চোররা ছিনিয়ে নিয়েছে। চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত প্যারিস ও পাশ্ববর্তী এলাকায় এ ধরনের ৭১টি চুরির ঘটনা ঘটেছে। এর মধ্যে রিচার্ড মিলে ব্র্যান্ডের অন্তত চারটি ঘড়িও রয়েছে; যার প্রত্যেকটির মূল্য এক লাখ ইউরোর ওপরে।

তবে জাপানি ওই ব্যক্তি নিজেকে একটু বেশিই ভাগ্যবান মনে করতে পারেন। কারণ হিসেবে পুলিশ বলছে, ঘড়িটি ছিনিয়ে নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার সময় একটি মোবাইল ফোন ফেলে রেখে গেছে চোর। পুলিশ এই ফোনের সূত্র ধরে তদন্ত করছে। সংঘবদ্ধ চক্র এ ধরনের চুরির ঘটনার সঙ্গে জড়িত কিনা সেটি জানতে গুরত্বের সঙ্গে তদন্ত এগিয়ে নিচ্ছে প্যারিস পুলিশ।

সূত্র : এএফপি।

এসআইএস/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]