সিরিয়ায় অভিযান : এরদোয়ানকে ইমরান খানের পূর্ণ সমর্থন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৫:১৮ পিএম, ১৩ অক্টোবর ২০১৯

সিরিয়ার উত্তরাঞ্চলে কুর্দি যোদ্ধাদের বিরুদ্ধে চালানো সামরিক অভিযানে তুরস্কের প্রতি নজিরবিহীন সমর্থন জানিয়েছে পাকিস্তান। বুধবার কুর্দি নেতৃত্বাধীন সিরিয়ান ডেমোক্রেটিক ফোর্সের (এসডিএফ) বিরুদ্ধে সামরিক অভিযান শুরু করে তুরস্ক। এর পরই তুরস্কের সামরিক অভিযানে বিরল সমর্থনের কথা জানিয়েছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। চলতি মাসের শেষের দিকে পাকিস্তান সফরে যাওয়ার কথা রয়েছে তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ানের।

গত পাঁচ বছর ধরে জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেটের (আইএস) বিরুদ্ধে এই কুর্দি যোদ্ধাদের সঙ্গে নিয়ে সিরিয়ায় অভিযান পরিচালনা করেছিল যুক্তরাষ্ট্র। এখন সিরিয়া থেকে সৈন্য প্রত্যাহার করে নেয়ায় যুক্তরাষ্ট্রের এক সময়ের মিত্র কুর্দিদের বিরুদ্ধে সামরিক অভিযান চালাচ্ছে তুরস্ক। আইএসের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্র নেতৃত্বাধীন জোটের সঙ্গে লড়াইয়ে প্রায় এক হাজার ১০০ যোদ্ধা হারায় এসডিএফ।

সিরিয়া যুদ্ধ শুরুর পর থেকে তৃতীয়বারের মতো এ ধরনের সামরিক অভিযান পরিচালনা করলো তুরস্ক। শুক্রবার তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ানের সঙ্গে টেলিফোনে কথা বলেছেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। এ সময় তিনি সিরিয়া অভিযানে তুরস্কের প্রতি পাকিস্তানের সমর্থন এবং সংহতি প্রকাশ করেন।

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, সন্ত্রাসবাদ ইস্যুতে আঙ্কারার উদ্বেগ পাকিস্তান পুরোপুরি বোঝে বলে তুর্কি প্রেসিডেন্টকে জানান ইমরান খান। পাক প্রধানমন্ত্রী বলেন, সন্ত্রাসবাদের কারণে ৪০ হাজার মানুষের প্রাণহানির ঘটনায় তুরস্ক যে ধরনের চ্যালেঞ্জ এবং হুমকির মুখোমুখি হয়েছে পাকিস্তান সেব্যাপারে পুরোপুরি অবগত রয়েছে।

এরদোয়ানকে ইমরান খান বলেন, `পুরো সমর্থন এবং সংহতি জানিয়ে তুরস্কের পাশে রয়েছে পাকিস্তান। আমরা প্রার্থনা করছি, সিরিয়ার সুরক্ষা, আঞ্চলিক স্থিতিশীলতা এবং শান্তিপূর্ণ সমাধানের জন্য তুরস্ক যে প্রচেষ্টা নিয়েছে তা সম্পূর্ণরূপে সফল হোক।‘

সূত্র : এএফপি।

এসআইএস/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]