ভারতের মুসলিমরা সবচেয়ে সুখে আছে : আরএসএস প্রধান

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৯:৫৩ পিএম, ১৩ অক্টোবর ২০১৯

ভারতে ক্ষমতাসীন বিজেপি নেতৃত্বাধীন এনডিএ জোটের শরিক দল ও মোদি সরকারের ভাবগুরু রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘের (আরএসএস) প্রধান মোহন ভগত বলেছেন, হিন্দু সংস্কৃতির কারণে গোটা বিশ্বের মধ্যে ভারতের মুসলিমরা সবচেয়ে সুখী আছেন। দেশটির সংবাদমাধ্যম নিউজ-১৮ এ খবর জানিয়েছে।

দুর্গাপূজার এক সমাবেশে বক্তব্য দিতে গিয়ে আরএসএস প্রধান বলেছেন, হিন্দু কোনো ধর্ম নয়, কোনো ভাষা নয়, কোনো দেশের নাম নয়। এটা হলো তাদের সবার সংস্কৃতি, যারা ভারতে বসবাস করেন এবং নিজেকে একজন ভারতীয় হিসেবে পরিচয় দিয়ে গর্ববোধ করেন।

মোহন ভগত দাবি করেছেন, যখন কোনো জাতি সঠিক পথ থেকে বিচ্যুত হয় তখন তারা সঠিক পথের সন্ধানে আমাদের কাছে আসেন। ইহুদিরা যখন পথ হারিয়ে ফেলেছিল তখন একমাত্র ভারত তাদেরকে আশ্রয় দিয়েছে। পারসিরা মুক্তভাবে তাদের ধর্ম চর্চা করতে পেরেছেন শুধু ভারতে।

আরএসএস প্রধানের ভাষ্যমতে, ভারতে অনেক মানুষ আছেন যারা তাদের হিন্দু পরিচয় দিতে লজ্জিত হন। অনেকে আছেন যারা বলেন, তারা হিন্দু হওয়ার জন্য গর্বিত। এমনও অনেকে আছেন যারা বলেন, তারা হিন্দু। কিন্তু অব্যাহতভাবে হিন্দু শব্দটা উচ্চারণে তারা রাগ দেখান।

আরএসএস এমন কিছু মানুষের জন্য কাজ করছে যারা যারা তাদের হিন্দু পরিচয় নিয়ে সতর্ক। কারণ এতে তাদের স্বার্থ নষ্ট হয়। সমাজকে এবং তার সব শাখাকে সংগঠিত করে একত্রিত করার প্রয়োজন। আরএসএস সেই লক্ষ্যেই প্রতিনিয়ত কাজ করে যাচ্ছে।

মোহন ভগত জানান, ‘কারো প্রতি আমাদের ঘৃণা নেই। আমাদেরকে একটা উন্নত সমাজ গড়ে তুলতে হবে, যে সমাজ পরিবর্তনের কথা বলে পুরো দেশের উন্নয়নে সহায়তা করতে পারে। আরএসএস তার দৃষ্টিভঙ্গিতে দৃঢ় যে ভারত একটি হিন্দু রাষ্ট্র।

জাতীয় পরিচয়, সবার সামাজিক পরিচয়, দেশের প্রকৃতির পরিচয়ের ভিত্তিতে আরএসএসের দৃষ্টিভঙ্গি ও ঘোষণা পরিষ্কার। সেই ঘোষণা হলো, সুচিন্তিত-দৃঢ়ভাবে ভারত হলো হিন্দুস্তান এবং একটি হিন্দু রাষ্ট্র।

এসএ/এমএস