শ্যাম্পেন দিয়ে গোসল করেন পাকিস্তানি মডেল!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৮:৫০ পিএম, ২৩ অক্টোবর ২০১৯

কারও দামি গাড়ি কেনার শখ তো কেউ আবার ঘোরাঘুরি করে প্রচুর খরচ করেন। কারও আবার দামি গয়না কেনার শখ। বিশ্বের নানা প্রান্তে এমন মানুষের অভাব নেই। কিন্তু শুধু স্নানের জন্য কেউ লাখ লাখ টাকা খরচ করেন এমন ঘটনা খুব বিরল।

কামালিয়া জহুর। পাকিস্তান বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ ব্যবসায়ী মোহাম্মদ জহুরের স্ত্রী তিনি। পেশায় মডেল ও গায়িকা। ৩৯ বছর বয়সী কামালিয়া জন্মসূত্রে ইউক্রেনিয়ান। তার প্রকৃত নাম নাতালিয়া শারেনকোভা। ২০০৩ সালে মোহাম্মদ জহুরের সঙ্গে বিয়ের পর নাম বদলে হয় কামালিয়া জহুর।

কামালিয়া ও মোহাম্মদ জহুর দম্পতির আরাবেলা ও মিরাবেলা নামে দুই কন্যা আছে। তারা যে বাংলোয় থাকেন তাতে মোট ঘর ১০টি। ২২ জন গৃহপরিচারক সেটি দেখাশোনা করেন। তাদের বার্ষিক বেতন দুই কোটি টাকারও বেশি।

zahoorস্বামী-সন্তানসহ কামালিয়া জহুর

বিলাসবহুল জীবনযাপন আর অদ্ভুত সব শখের জন্য কামালিয়া জহুর নানা সময় আলোচিত হন। জানা গেছে, বছরে নাকি তিনি ৫০ লাখ টাকার বেশি কেনাকাটা করেন। কামালিয়া জহুরের হাতে যে ঘড়িটি শোভা পায় তার দাম নাকি ৪০ লাখ টাকারও বেশি। চশমা পরেন ৪ লাখ টাকার।

এ তো গেল তার দামি জিনিসপত্র কেনা আর পরার শখের কথা। কিন্তু তার অদ্ভুত একটি শখ রয়েছে, যা শুনলে আশ্চর্য হবেন অনেকে। গোসলের জন্য আমরা পানি ব্যবহার করলেও পানি একদমই পছন্দ নয় কামালিয়ার।

গোসলের জন্যও বিলাসবহুল জীবনযাপনে অভ্যস্ত এই মডেল ও গায়িকা লাখ লাখ টাকা খরচ করেন। গোসলে পানির পরিবর্তে তিনি ব্যবহার করেন সবচেয়ে দামি মদ শ্যাম্পেন। গোসলের জন্য প্রতিদিন তার ৫ হাজার টাকা মূল্যের ২০ থেকে ৩০ বোতল শ্যাম্পেনের প্রয়োজন হয়।

এসএ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]