জাতিসংঘ দফতরের সামনে গায়ে আগুন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৯:৫৪ পিএম, ২৩ অক্টোবর ২০১৯

সিরিয়ায় তুরস্কের সামরিক অভিযানের মুখে অসহায় কুর্দি জাতিগোষ্ঠীর এক ব্যক্তি বুধবার জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থা ইউএনএইচসিআর-এর আঞ্চলিক সদর দফতরের সামনে গায়ে আগুন দিয়েছেন। পুলিশের বরাতে বার্তা সংস্থা এএফপির এক প্রতিবেদনে এ খবর জানানো হয়েছে।

জেনেভা পুলিশের মুখপাত্র সিলভেইন জেনটিল এএফপিকে বলেন, ৩১ বছর বয়সী কুর্দি জাতিগোষ্ঠীর ওই ব্যক্তি একজন জার্মান অধিবাসী। ঘটনার পর তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সেখানে তার চিকিৎসা চলছে। তবে তিনি কেন এমন কাজ করেছেন তার কোনো ব্যাখ্যা দেননি।

মুখপাত্র সিলভেইন জেনটিল বলেন, ‘তিনি কেন এমন কাজ করেছেন আমরা তা ধারণা করতে পারছি। তবে স্পষ্ট করে এখনো কিছু জানতে পারিনি। ঘটনার পর যখন সাহায্যকারীরা তাকে উদ্ধার করতে যায় তখন তিনি তাদের বলেন যে তিনি কঠিন সময় পার করছেন।’

পুলিশ জানিয়েছে, জেনেভায় ইউএনএইচসিআর-এর ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) সদর দফতরের সামনে স্থানীয় সময় সকাল ৮টায় ঘটনাটি ঘটেছে। ঘটনার কথা জানার পরপরই সেখানে পৌঁছান উদ্ধারকর্মীরা। সেখান থেকে তাকে উদ্ধারের পর হেলিকপ্টারে করে পাশের হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

গত ৯ অক্টোবর সিরিয়ার উত্তরাঞ্চলে কুর্দি যোদ্ধাদের ওপর সামরিক অভিযান শুরু করে তুরস্ক। কয়েক দিনের এই অভিযানে কুর্দি নেতৃত্বাধীন সিরিয়ান ডেমোক্র্যাটিক ফোর্সের (এসডিএফ) শত শত সদস্য ছাড়াও অনেক মানুষ প্রাণ হারিয়েছেন। ঘরবাড়ি ছেড়ে পালাতে বাধ্য হয়েছেন লাখো মানুষ।

এসডিএফকে সঙ্গে নিয়ে এতদিন ধরে সিরিয়ায় আইএস বিরোধী অভিযান চালিয়ে আসছিল যুক্তরাষ্ট্র। কিন্তু হঠাৎ করে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প সেখান থেকে সেনা প্রত্যাহারের ঘোষণা দেন। তারপরই একা হয়ে যাওয়া কুর্দিদের ওপর সামরিক অভিযান শুরু করে তুরস্ক।

এসএ/পিআর