সোনিয়া-রাহুল-প্রিয়াঙ্কার বিশেষ নিরাপত্তা তুলে নেয়া হচ্ছে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৮:১৭ পিএম, ০৮ নভেম্বর ২০১৯

ভারতের প্রধান বিরোধী দল কংগ্রেসের সভাপতি সোনিয়া গান্ধী, সম্পাদক প্রিয়াঙ্কা গান্ধী এবং সাবেক সভাপতি রাহুল গান্ধীর জন্য এতদিন ধরে যে বিশেষ নিরাপত্তার ব্যবস্থা (এসপিজি) ছিল তা প্রত্যাহার করে নিচ্ছে নরেন্দ্র মোদি নেতৃত্বাধীন ক্ষমতাসীন বিজেপি সরকার। দেশটির গণমাধ্যমগুলোর খবরে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

কেন্দ্রীয় সরকারের বিভিন্ন সূত্রের বরাতে বলা হচ্ছে, এখন থেকে সোনিয়া গান্ধী ও তার দুই সন্তানকে দেশটির স্পেশাল প্রোটেকশন গ্রুপ (এসপিজি) ক্যাটাগরির নিরাপত্তা দেয়া হবে না। তার বদলে শুধুমাত্র জেড প্লাস ক্যাটাগরির নিরাপত্তাই বহাল থাকবে তাদের জন্য। শিগগিরই এ সংক্রান্ত আনুষ্ঠানিক ঘোষণা হতে পারে।

রাজনীতিকদের উপর হামলার আশঙ্কার প্রেক্ষিতেই সম্প্রতি গান্ধী পরিবারের নিরাপত্তা ব্যবস্থা পর্যালোচনা করে এমন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। তবে সোনিয়া-রাহুলদের সরকারের তরফ থেকে এ নিয়ে এখনো কিছু জানানো হয়নি বলে দাবি গান্ধী পরিবারের ঘনিষ্ঠদের। কংগ্রেসের পক্ষ থেকেও আনুষ্ঠানিকভাবে কোনো প্রতিক্রিয়া এখনো আসেনি।

তবে কংগ্রেসের জ্যেষ্ঠ নেতা আহমেদ প্যাটেল এক টুইট বার্তায় এর নিন্দা জানিয়ে বলেছেন, ‘তারা (সরকার) সোনিয়া, রাহুল ও প্রিয়াঙ্কার জীবন নিয়ে খেলছে। কীসের ভিত্তিতে তারা এটা করছে। তাদের লক্ষ্য শুধু গান্ধী পরিবারের নিরাপত্তার অবদমন।’

১৯৯১ সালে ভারতের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও রাহুল-প্রিয়ঙ্কার বাবা রাজীব গান্ধী হত্যাকাণ্ডের শিকার হওয়ার পর থেকে পরিবারটিকে বিশেষ এই নিরাপত্তা সুবিধা (এসপিজি) দেয়া হচ্ছে। সরকার অবশ্য অভিযোগ তুলেছে এসপিজি নিরাপত্তা ব্যবস্থা নির্বিঘ্নে পরিচালনার জন্য গান্ধী পরিবার ঠিকমতো সহযোগিতা করছে না।

ভারতে সাধারণত প্রধানমন্ত্রী, তার পরিবার, সাবেক প্রধানমন্ত্রী এবং তার পরিবারের সদস্যরাই এসপিজি নিরাপত্তা পেয়ে থাকেন। তিন হাজার সুশৃঙ্খল বাহিনী সারাক্ষণ তাদের নিরাপত্তা দেন। আর জেড প্লাস ক্যাটাগরির নিরাপত্তায় ভিভিআইপিদের নিরাপত্তায় মোতায়েন থাকেন দেশটির আধা সামরিক বাহিনীর (সিআরপিএফ) ১০০ জওয়ান।

image

মোদি সরকার ক্ষমতায় আসার পর এর আগে গত আগস্টে কংগ্রেস দলীয় দেশটির সাবেক প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংয়ের এসপিজি নিরাপত্তা তুলে নেয়। একই পরিবারের দুই সাবেক প্রধানমন্ত্রী আততায়ীদের হাতে নিহত হওয়ার কারণেই গান্ধী পরিবারকে এসপিজি নিরাপত্তা দেয়া হত। অবশেষে তা তুলে নেয়া হচ্ছে।

নরেন্দ্র মোদিই একাই এখন এই নিরাপত্তা সুবিধা পাবেন। এর আগে ভারতের সাবেক দুই প্রধানমন্ত্রী জনতা দলের এইচ ডি দেবগৌড়া এবং কংগ্রেস দলীয় প্রধানমন্ত্রী বিশ্বনাথ প্রতাপ সিংকে দেয়া বিশেষ নিরাপত্তা সুবিধা প্রত্যাহার করা হয়। তবে বিজেপি দলীয় আরেক সাবেক প্রধানমন্ত্রী অটল বিহারী বাজপেয়ি আমৃত্যু (২০১৮) এই সুবিধা পেয়েছেন।

এসএ/এমএস