স্ত্রীর বয়স ৭৪, স্বামীর ২১ তবুও তারা দারুণ সুখী

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৫:৩৮ পিএম, ১৮ নভেম্বর ২০১৯

গ্যারি যখন আলমিডাকে বিয়ে করেন তখন তার বয়স ছিল ১৭ বছর। এখন তার বয়স ২১ বছর। আর স্ত্রীর ৭৪। আজ থেকে চার বছর আগে ৭০ বছরের আলমিডাকে বিয়ে করেন ১৭ বছরের গ্যারি। ১৬ নভেম্বর এ অসম জুটি তাদের চতুর্থ বিবাহবার্ষিকী পালন করছেন। এই দিনে তিনি সারা বিশ্বকে জানিয়ে দিলেন, তিনি তার এ দাম্পত্য জীবনে খুবই খুশি।

২০১৫ সালের দিকে ২১ বছর বয়সী গ্যারি বিয়ে করেন ৭৪ বছর বয়সী আলমিডাকে। ১৬ নভেম্বর ছিল তাদের চতুর্থ বিবাহবার্ষিকী। এই উপলক্ষে কয়েকটি ছবি শেয়ার করেছেন ইনস্টাগ্রামে। এরপর থেকেই তাদের ছবি ভাইরাল হয়ে যায়। তারা উভয়ই যুক্তরাষ্ট্রের বাসিন্দা।

একটি আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, গ্যারির যখন ১৭ বছর বয়স তখন তাদের দু’জনের সাক্ষাৎ হয়। এ সময় আলমিডার বয়স ৭০ বছর। তখন তাদের দুজনের বয়সের পার্থক্য ছিল ৫৪। তবে বয়স তাদের ভালোবাসার সামনে বাঁধা হয়ে দাঁড়াতে পারেনি। সমাজকে প্রচলিত ধারাকে ‘বুড়ো আঙ্গুল’ দেখিয়ে সুখেই সংসার করছেন তারা।

স্ত্রীর প্রতি অকৃত্তিম ভালোবাসা জানিয়ে ইনস্টাগ্রামে একটি আবেগঘন পোস্ট দিয়েছেন গ্যারি। সেখানে তিনি লিখেছেন, ‘আজ থেকে চার বছর আগে এই দিনে (১৬ নভেম্বর) আমি এমন এক নারীকে আমার হৃদয় দিয়েছি, যে আমার হৃদয় হরণ করেছে এবং প্রতিনিয়ত করেই যাচ্ছে। তোমার সঙ্গে দেখা হওয়ার আগের দিন পর্যন্ত আমি জানতাম না যে, কাউকে এত গভীরভাবে ভালোবাসা সম্ভব। তোমার প্রতি আমার ভালোবাসা এই পৃথিবী ছাড়িয়ে সমুদ্রের চেয়েও গভীর। আমরা সবসময় উত্থান-পতনের মধ্য দিয়ে এসেছি যা আমরা সর্বদা কাটিয়ে উঠেছি। শুধুমাত্র তোমার কারণে আমি প্রতিদিন সকালে ঘুম থেকে উঠি। সেই সঙ্গে কঠোর পরিশ্রম করছি যাতে করে আমাদের লক্ষ্যগুলো ও স্বপ্নগুলো পূর্ণ হয়।’

তিনি আরও লিখেছেন, ‘আমি আমাকে সত্যিই গর্বিত করেছ এবং প্রতিনিয়ত করে যাচ্ছ। আমার দেখা তুমিই সবচেয়ে কষ্টসহিষ্ণু নারী। তুমি আমাকে খুব দ্রুতই অনুপ্রাণিত করতে পারো। ভেতরে-বাইরে তুমি আসলেই অনন্যা। তুমি শুধু আমার স্ত্রীই নও, আমার সবচেয়ে ভালো বন্ধু। আমি স্রষ্টার কাছে প্রার্থনা করি এই জন্য যে, তিনি তোমাকে আমার স্ত্রী করেছেন। আমি মনে করি, স্রষ্টার কাছে আমি যা চেয়েছি, স্রষ্টা তার চেয়ে অনেক বেশি দিয়েছেন।’

শেষে গ্যারি লিখেছেন, ‘তোমাকে আমি নিঃশর্ত ভালোবাসি। আমার শেষ নিঃশ্বাস পর্যন্ত তোমার যত্ন নিতে চাই। হৃদয়ের সবটুকু দিয়ে তোমাকে ভালোবাসি আমি।’

Couple

এসআর/এমএস