মা-বোন-ভাবিকে ধর্ষণ, মদ্যপ ছেলেকে খুন করল পরিবার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৩:০৬ পিএম, ১৯ নভেম্বর ২০১৯

মদ্যপ অবস্থায় একাধিকবার নিজের মা, বোন এবং ভাবিকে ধর্ষণের ঘটনায় অতিষ্ঠ হয়ে এক যুবককে হত্যা করেছে তার পরিবারের সদস্যরা। এই অভিযোগে ওই পরিবারের চার সদস্যকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এ ঘটনা ঘটেছে ভারতের মধ্যপ্রদেশের দাতিয়া এলাকায়।

দাতিয়া পুলিশের সাব ডিভিশনাল কর্মকর্তা গীতা ভরদ্বাজ টাইমস অব ইন্ডিয়াকে বলেছেন, ২৪ বছর বয়সী ওই যুবকের মরদেহ উদ্ধারের পর পরিবারের সদস্যদের জিজ্ঞাসাবাদ করেছে পুলিশ। জিজ্ঞাসাবাদের সময় তারা পুলিশকে জানিয়েছেন, প্রতিনিয়ত মদ্যপান করে এসে মাতাল অবস্থায় পরিবারের নারী সদস্যদের ধর্ষণ করতো ওই যুবক। যে কারণে তাকে পরিবারের অন্য সদস্যরা শ্বাসরোধ করে হত্যা করেন।

গত ১২ নভেম্বর দাতিয়ার গোপালদাস পাহাড়ি এলাকা থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। পুলিশের এই কর্মকর্তা বলেন, ময়নাতদন্তে ছেলেটিকে শ্বাসরোধ করে হত্যার আলামত পাওয়া গেছে। ছেলেটি মদ্যপ ছিল এবং তাকে নিয়ে তীব্র ক্ষোভ জন্মেছিল পরিবারের সদস্যদের মধ্যে।

জিজ্ঞাসাবাদে পরিবারের সদস্যরা জানিয়েছেন, নিয়মিত নিজের মা, বোন এবং ভাবিকে ধর্ষণ করতো ছেলেটি। সেই কারণেই তাকে হত্যা করেছে পরিবার।

নিহত যুবকের বাবা বলেছেন, ১১ নভেম্বর তার ছেলে মদ্যপ অবস্থায় বাড়ি ফিরে তার ভাবিকে ধর্ষণের চেষ্টা করে। তার কথায়, এর আগেও বহুবার সে এমন করেছে। তাই এবার আমরা ওকে মেরে ফেলি। হত্যার পর তার দেহ গোপালদাস পাহাড়ে ফেলে আসি।

পুলিশ নিহত যুবকের বাবা, স্ত্রী, ছোট ভাই ও তার স্ত্রীকে গ্রেফতার করেছে। গ্রেফতারকৃত চারজনকে বিচারবিভাগীয় হেফাজতে পাঠিয়েছেন দেশটির আদালত।

এসআইএস/পিআর