ন্যাটো সম্মেলনে বিশ্ব নেতাদের হাসির পাত্র হলেন ট্রাম্প

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৬:০২ পিএম, ০৪ ডিসেম্বর ২০১৯

পশ্চিমা সামরিক জোট ন্যাটোর সম্মেলন উপলক্ষে লন্ডনে জড়ো হয়েছেন ২৯ দেশের নেতারা। বাকিংহাম প্যালেসের এক রিসেপশনে যুক্তরাজ্য, কানাডা, ফ্রান্স এবং নেদারল্যান্ডের নেতারা এমন সময়ে ক্যামেরাবন্দি হলেন যখন তারা মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে উপহাস করে কথা বলছিলেন।

নেতাদের সেই বিদ্রুপাত্মক মুহূর্তের ভিডিওটি পোস্টকরাসহ সাবটাইটেল দেয়ার কাজটি করেছে কানাডার গণমাধ্যম সিবিএস। স্থানীয় সময় মঙ্গলবার সন্ধ্যার সেই দৃশ্যটি ধারণ করা হয়েছে ব্রিটিশ হোস্ট ক্যামেরার মাধ্যমে। লন্ডনের অদূরের ওয়াটফোর্ড নামক এলাকায় মিত্র দেশের নেতারা সম্মেলন শুরুর আগে একত্রিত হয়ে আলোচনা করছিলেন।

ভিডিওটিতে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাক্রোঁর উদ্দেশে বলতে শোনা গেছে, ‘আপনি কি এ কারণেই দেরি করেছেন?’ তাদের কথার মধ্যে কানডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্র্যুডো উপহাস করে বলেন, ‘তার দেরি হয়েছে কারণ তাকে তো ৪০ মিনিট এক সংবাদ সম্মেলনের পেছনেই ব্যয় করতে হয়েছে।’

মঙ্গলবারের ওই ঘটনার আগে নেতারা প্রকাশ্যে ন্যাটোর কৌশল ও বাণিজ্য সম্পর্কে দ্বিমত পোষণ করায় সম্মেলনের আগেই ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে এমানুয়েল ম্যাক্রোঁর ওয়ান টু ওয়ান বৈঠকটি গণমাধ্যমের কাছে দীর্ঘ প্রশ্নোত্তর পর্বের মধ্য দিয়ে এগিয়ে গেছে।

ভিডিওতে ব্রিটিনের প্রিন্সেস আন্নে এবং ডাচ প্রধানমন্ত্রী মার্ক রুটের মধ্যকার দ্বন্দ্ব নিয়ে ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাক্রোঁকে একটি উপখ্যান বলতে দেখা গেছে। কিন্তু ফ্রান্সের নেতা ক্যামেরার অপর পাশে ছিলেন তাই তিনি যখন ওসব কথা বলছিলেন তখন ক্যামেরা তার কথাগুলো রেকর্ড করতে পারেনি।

খুশি খুশি মনে সেখানে কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্র্যুডোকে বলতে শোনা যায়, ‘ওহ, হ্যা, হ্যা তিনি ঘোষণা দিয়েছেন। আর আপনি শুধু দেখেন তার দলের বিজ্ঞ বক্তৃতা ফ্লোর থেকে শুনতে পাবেন।’ ট্রাম্প গত বছরের ন্যাটো সম্মেলনেও তার স্বাভাবিক প্রটোকল ভেঙ্গে ডজনখানে মিত্র দেশের নেতার সঙ্গে প্রবেশ করে সমালোচিত হন।

ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ম্যাক্রোঁ এর আগে ন্যাটো জোটকে মৃতপ্রায় অভিহিত করেছিলেন। ট্রাম্প ম্যাক্রোঁর এমন মন্তব্যকে জঘন্য বলে অভিহিত করে ম্যাক্রোঁর বুদ্ধি লোপ পেয়েছে দাবি করেছেন। এছাড়া আজ বুধবার ন্যাটো নেতাদের তিনঘণ্টার রুদ্ধদ্বার বৈঠকের পর ট্রাম্প একান্ত সংবাদ সম্মেলনে কথা বলবেন।

এসএ/এমকেএইচ