মাংস রান্নার গন্ধ পেয়ে বাঘের হানা, জঙ্গলে নিয়ে খেল নারীকে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০১:১৩ পিএম, ১১ ডিসেম্বর ২০১৯

বাড়িতে বসে মাংস রান্না করছিলেন এক নারী। সেই মাংসের গন্ধেই সেখানে হানা দিল বাঘ। বাড়িতে একাই থাকা সেই নারীকে জঙ্গলে টেনে নিয়ে খেয়ে ফেলল বাঘটি। মর্মান্তিক এ ঘটনা ঘটেছে ভারতের ঝাড়খণ্ডের এক গ্রামে।

মঙ্গলবার রামকান্দা থানা এলাকার কুশওয়ার গ্রামে বাঘের হানায় প্রাণ হারান কলসিয়া দেবী। জঙ্গলের একেবারে কাছেই ছিল তার কুঁড়েঘর। পাশে আরও কয়েকটি কুঁড়েঘরে বেশ কয়েকজন বসবাস করেন। এই এলাকায় প্রায়ই জঙ্গল থেকে বাঘ-সিংহের গর্জন শুনতে পান বাসিন্দারা।

এই এলাকার অনেককে হিংস্র পশুর পেটে যেতে হয়েছে। প্রতিনিয়ত এমন নির্মমতার স্বাক্ষী হয়েও তারা সেখান বসবাস করে আসছেন।

ভারতীয় একটি দৈনিক বলছে, মঙ্গলবার কলসিয়া দেবী নিজের কুঁড়েঘরে বসে মাংস রান্না করছিলেন। সেই গন্ধ পেয়েই হানা দেয় এক বাঘ। মাংসের খোঁজে জঙ্গল থেকে বেরিয়ে এসে সোজা ঢুকে পড়ে কলসিয়া দেবীর কুঁড়ে ঘরে। ভেতরে তাকে বসে থাকতে দেখে ঝাঁপিয়ে পড়ে বাঘটি।

পরে ঘাড় কামড়ে ওই নারীকে টানতে টানতে জঙ্গলের ভেতরে নিয়ে যায়। সাহায্যের জন্য তখন চিত্কার করছিলেন কলসিয়া। চিত্কার শুনে মানুষজন ছুটে এলেও ততক্ষণে অনেক দেরি হয়ে যায়।

ঘরের ভেতরে চুলায় মাংস রান্না অবস্থায় দেখে শোকাচ্ছন্ন হয়ে পড়েন স্থানীয়রা। এ ঘটনার কথা স্বীকার করেছে রাজ্যের বন দফতর। তবে তাদের দাবি, বাঘ নয়, কলসিয়াকে মেরেছে এক চিতাবাঘ। বেতলা ব্যাঘ্র সংরক্ষণ এলাকা সংলগ্ন জঙ্গলের পাশে ওই জনবসতি। এর আগেও ওই এলাকায় এমন ঘটনা ঘটেছে। তবে সরকার কোনও ব্যবস্থা নেয়নি বলে অভিযোগ রয়েছে।

এসআইএস/জেআইএম