ডিআর কঙ্গোতে বিদ্রোহীদের হামলায় নিহত ২২

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ১১:০২ এএম, ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯

আফ্রিকার দেশ ডেমোক্র্যাটিক রিপাবলিক অব (ডিআর) কঙ্গোর উত্তরাঞ্চলে বিদ্রোহী যোদ্ধাদের হামলায় ১৩ নারীসহ অন্তত ২২ কৃষক নিহত হয়েছেন। দেশটির সরকারি কর্মকর্তাদের বরাতে আলজাজিরার প্রতিবেদেন বলা হচ্ছে, ডিআর কঙ্গোতে চলতি মাসে বেশ কিছু ভয়াবহ হামলার ঘটনা ঘটেছে, যার মধ্যে সর্বশেষ এই হামলা একটি।

দেশটির উত্তরাঞ্চলের রাজধানী বেনিতে স্থানীয় সময় শনিবার রাতে অ্যালাইড ডেমোক্র্যাটিক ফোর্স নামের একটি সশস্ত্র বিদ্রোহী গোষ্ঠীর সদস্যরা এই হামলা চালায়। ডিআর কঙ্গোর ওই অঞ্চলটির প্রশাসক দোনাত কিবাওয়ানা বার্তা সংস্থা এএফপিকে এই তথ্য জানিয়েছেন।

রোববারে এএফপিকে প্রশাসক দোনাত কিবাওয়ানা বলেন, ‘হামলার পর মরদেহগুলো উদ্ধারের জন্য একদল লোক কাজ করছে এবং তাদেরকে সম্মানের সহিত সমাহিত করা হবে।’ বেনির সুশীল সমাজের ভাইস প্রেসিডেন্ট নোয়েলা কাটসোঙ্গারওয়াকি বলেন, নিহতরা সবাই কৃষক যার মধ্যে ১৩ জনই নারী।

শনিবারের এই হামলার একদিন আগে বেনিতে আরও একটি হামলা করেছিল বিদ্রোহী গোষ্ঠীর সদস্যরা, যাতে ছয়জন বেসামরিক নাগরিক নিহত হন। চলতি মাসের শুরুর দিকে পৃথক হামলায় ২৬ জন নিহত হয়েছিলেন। যারমধ্যে একটি হামলা হয়েছিল মানতুমাবি এবং অপর দুটি কামাঙ্গো শহরের পাশে।

স্থানীয় মানবাধিকার সংগঠন সিইপিএডিএইচও-এর দেয়া তথ্য অনুযায়ী, গত অক্টোবর থেকে বিদ্রোহীদের হামলায় দেশ শতাধিক মানুষ নিহত হয়েছেন। দেশটির সরকারি বাহিনী অক্টোবরের শেষ থেকে বিদ্রোহী গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে অভিযান শুরু করে। তারপর থেকে এডিএফ পাল্টা ভয়াবহ হামলা চালিয়ে এর প্রতিশোধ নিচ্ছে।

ডিআর কঙ্গোর উত্তরে আনুমানিক ১৬০টি বিদ্রোহী গোষ্ঠী আছে বলে ধারণা করা হয়, সেসব গোষ্ঠীর মোট সক্রিয় সদস্যের সংখ্যা ২০ হাজারেরও বেশি। তাদের মধ্যে বেশিরভাগই প্রাকৃতিক সম্পদের নিয়ন্ত্রণ নিতেই এই লড়াই করছে। বিশেষ করে উগান্ডায় তৈরি এডিএফ বেনি অঞ্চলে নিয়মিত হামলা চালিয়ে আসছে।

এসএ/এমএস