শরণার্থীদের আশ্রয় দিতে হিমশিম খাচ্ছে তুরস্ক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৩:১৭ পিএম, ২৩ ডিসেম্বর ২০১৯

শরণার্থীদের আশ্রয় দিতে গিয়ে রীতিমত হিমশিম খাচ্ছে তুরস্ক। দেশটির প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যেপ এরদোয়ান সতর্ক করে বলেছেন, তুরস্ক নতুন করে আর সিরীয় শরণার্থীদের আশ্রয় দিতে পারবে না। সিরিয়ায় নতুন করে যে শরণার্থী স্রোত তৈরি হয়েছে তা নিয়ন্ত্রণ করতে পারবে না বলে জানিয়ে দিয়েছে তুরস্ক। খবর বিবিসির।

সিরিয়ার উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় বিদ্রোহী অধ্যুষিত ইদলিব প্রদেশে ক্রমাগত বোমা হামলা বৃদ্ধি পাওয়ায় তুর্কি সীমান্তের দিকে পালাচ্ছে হাজার হাজার সিরীয় নাগরিক। ইতোমধ্যেই প্রায় ৩৭ লাখ সিরীয় শরণার্থী তুরস্কে আশ্রয় নিয়েছে। বিশ্বের সবচেয়ে বেশি শরণার্থীর বোঝা মাথায় নিয়েছে তুরস্ক। এরদোয়ান সতর্ক করে বলেছেন, ইউরোপের দেশগুলোকেও এখন এগিয়ে আসতে হবে।

প্রায় ৩০ লাখ লোক ইদলিবে বসবাস করে। এটাই দেশটির সর্বশেষ গুরুত্বপূর্ণ অঞ্চল যেখানে বিদ্রোহী যোদ্ধা এবং জিহাদিরা অবস্থান করছে। তারা প্রেসিডেন্ট বাসার আল আসাদ বাহিনীর বিপক্ষে লড়াই করে যাচ্ছে।

রোববার ইস্তাম্বুল শহরে এক পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রেসিডেন্ট এরদোয়ান বলেন, ইদলিব থেকে ৮০ হাজারের বেশি মানুষ পালিয়েছে। তারা তুর্কি সীমান্তের দিকে যাচ্ছে। সিরীয় এবং রুশ বাহিনী ওই অঞ্চলে ক্রমাগত বোমা হামলা চালিয়ে যাচ্ছে। জীবন বাঁচাতে সেখান থেকে পালাতে বাধ্য হচ্ছে স্থানীয়রা।

তিনি সতর্ক করে বলেন, ইদলিবের এই লোকজনের ওপর সহিংসতা যদি বন্ধ না হয় তবে এই সংখ্যা আরও বাড়বে। তিনি বলেন, সে ক্ষেত্রে তুরস্কের পক্ষে এভাবে শরণার্থীর বোঝা বহন করা সম্ভব হবে না।

টিটিএন/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]