ইসরায়েলের বিরুদ্ধে শক্ত ব্যবস্থা চায় বাংলাদেশ

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১১:৪৬ এএম, ২৩ জানুয়ারি ২০২০

পূর্ব জেরুজালেমসহ ফিলিস্তিনের ভূখণ্ডে ইসরায়েলের সব ধরনের অবৈধ স্থাপনা উঠিয়ে নিতে জরুরি ব্যবস্থা গ্রহণে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদকে ওআইসির পক্ষ থেকে আহ্বান জানিয়েছেন জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি রাষ্ট্রদূত রাবাব ফাতিমা।

বুধবার (২২ জানুয়ারি) নিরাপত্তা পরিষদে ‘ফিলিস্তিনি প্রশ্নসহ মধ্যপ্রাচ্য পরিস্থিতি’ শীর্ষক উন্মুক্ত বিতর্কে ওআইসি ও বাংলাদেশের পক্ষে দেয়া বক্তব্যে তিনি এ আহ্বান জানান। জাতিসংঘে বাংলাদেশ স্থায়ী মিশন থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

রাবাব ফাতিমা বলেন, ‘এ ধরনের হুমকি ও সহিংসতা বিনা চ্যালেঞ্জে যেতে পারে না। ইসরায়েলের বিরুদ্ধে শক্ত পদক্ষেপ গ্রহণ এবং নিরাপত্তা পরিষদের রেজুলেশনসমূহ বিশেষ করে রেজুলেশন ২৩৩৪ এর বাস্তবায়নে ইসরায়েলকে বাধ্য করার দায়িত্ব আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের ওপরই বর্তায়।’

isreal

ইসরায়েল কর্তৃক ফিলিস্তিনি জনগণের ওপর সৃষ্ট অপরাধের তদন্ত শুরু করার যে পদক্ষেপ আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালত (আইসিসি) গ্রহণ করেছে সেটিকে স্বাগত জানান রাষ্ট্রদূত ফাতিমা। একই সঙ্গে তিনি আশা প্রকাশ করেন, আইসিসি দ্রুততার সাথে এটি বাস্তবায়ন করবে।

বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি আরও বলেন, ইসরায়েলের মানবাধিকার লঙ্ঘন ও সহিংসতার দায়-দায়িত্ব নিরূপণ ও ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠা করার মাধ্যমেই কেবল বিচারহীনতার সংস্কৃতি বন্ধ হতে পারে।

isreal

স্বাধীনতার জন্য বাংলাদেশের সুদীর্ঘ সংগ্রাম ও ১৯৭১ সালের ভয়াবহতম গণহত্যার কথা স্মরণ করে রাষ্ট্রদূত ফাতিমা বলেন, সেই সংগ্রাম ও ভয়াবহ স্মৃতি বাংলাদেশকে সর্বদা বিশ্বের নিপীড়িত ও অধিকারবঞ্চিত মানুষের অধিকার আদায়ে কাজ করতে উৎসাহ জুগিয়েছে। আর এ কারণেই ফিলিস্তিনি জনগণের প্রতি সবসময় বাংলাদেশের অকুণ্ঠ সমর্থন থাকবে।

জাতিসংঘের সংশ্লিষ্ট প্রস্তাবসমূহ, আন্তর্জাতিকভাবে সম্মত ‘টার্ম অব রেফারেন্স’ ও দ্বি-রাষ্ট্রীয় সমাধান কাঠামোর ভিত্তিতে পূর্ব জেরুজালেমকে রাজধানী করে স্বাধীন ফিলিস্তিন রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার জন্য বহুপাক্ষিক রাজনৈতিক শান্তি প্রক্রিয়ার মাধ্যমে বিশ্ব সম্প্রদায়কে আরও দায়িত্বের সাথে ও গঠনমূলকভাবে কাজ করার আহ্বান জানান বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি।

আরএস/জেআইএম