মুসলিম যাত্রীদের বিমান থেকে নামিয়ে দেয়ায় জরিমানা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০২:১৭ এএম, ২৬ জানুয়ারি ২০২০

বিমান থেকে তিন মুসলিম যাত্রীকে নামিয়ে দেয়ায় ডেলটা এয়ারলাইন্সকে ৫০ হাজার ডলার জরিমানা করেছে মার্কিন পরিবহন বিভাগ।

মার্কিন পরিবহন বিভাগের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, বিমান থেকে নামিয়ে দিয়ে ওই যাত্রীদের সঙ্গে বৈষম্যমূলক আচরণ করায় এবং বৈষম্যবিরোধী আইন লঙ্ঘন করায় ডেলটা এয়ারলাইন্সকে জরিমানা করা হয়।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ২০১৬ সালের ২৬ জুলাই প্যারিসের চার্লস দ্য গল বিমানবন্দরে ডেলটা এয়ারলাইন্সের ফ্লাইট-২২৯ থেকে এক মুসলিম দম্পতিকে নেমে যেতে বলা হয়। বিমানটির আরেক যাত্রী ফ্লাইট অ্যাটেন্ডেন্টের কাছে অভিযোগ জানিয়ে বলেন, ওই মুসলিম দম্পতির আচরণ তাকে ‘অস্বস্তিকর পরিস্থিতি’তে ফেলেছিল।

ওই ফ্লাইটের পাইলট এয়ারলাইন্সের নিরাপত্তা বিভাগের সঙ্গে যোগাযোগ করে জানান, ওই দম্পতি যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিক। তারা যুক্তরাষ্ট্রে নিজেদের বাড়িতে ফিরছিলেন। এর আগে তাদের বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগও নেই। কিন্তু নিরাপত্তা বিভাগের কাছ থেকে নিশ্চিত হওয়ার পরও পাইলট তাদের বিমান রাখতে আপত্তি জানান।

মার্কিন যোগাযোগ বিভাগ তাদের বিবৃতিতে বলেছে, ওই দম্পতি মুসলিম না হয়ে যদি অন্য কোনো ধর্মের হতো, তাহলে তাদের সঙ্গে এমন বৈষম্যমূলক আচরণ করা হতো না।

একই ধরনের আরেকটি ঘটনা ঘটে ২০১৬ সালের ৩১ জুলাই। এ দিন আমস্টারডাম থেকে নিউইয়র্কের উদ্দেশে রওনা দেয়া ফ্লাইট ৪৯-এর এক মুসলিম যাত্রীর বিরুদ্ধে কয়েকজন যাত্রী অভিযোগ জানান। কিন্তু বিমানের ফার্স্ট অফিসার ওই মুসলিম যাত্রীর আচরণে অস্বাভাবিক কিছু দেখেননি। এয়ারলাইনসের নিরাপত্তা বিভাগও তার বিরুদ্ধে নেতিবাচক কোনো তথ্য দেয়নি। পাইলট উড্ডয়নের জন্য প্রস্তুতও হয়েছিলেন। কিন্তু শেষ মুহূর্তে ওই যাত্রীকে উড়োজাহাজ থেকে নামিয়ে দিয়ে তার আসন তল্লাশি করা হয়।

ওই যাত্রীদের সঙ্গে কোনো ধরনের বৈষম্যমূলক আচরণের কথা অস্বীকার করলেও ডেলটা এয়ারলাইনস কর্তৃপক্ষ অবশ্য স্বীকার করেছে, দুটো ঘটনাই তারা আরও ভালোভাবে সামাল দেয়া যেতো।

যুক্তরাষ্ট্র সরকার বলছে, এই জরিমানা ভবিষ্যতে ডেল্টা ও অন্যান্য বিমান সংস্থাকে এ ধরনের অনৈতিক আচরণের ব্যাপারে সতর্ক করবে।

এমএসএইচ