পশ্চিমবঙ্গে মাধ্যমিকের প্রশ্নফাঁস

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৭:৪৯ পিএম, ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০

ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যে মাধ্যমিক পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁস হয়েছে। আজ মঙ্গলবার দুপুর বারোটায় রাজ্যের মালদহ জেলায় বাংলা পরীক্ষা শুরুর এক ঘণ্টার মাথায় অনলাইনে বার্তা আদান-প্রদানের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম হোয়াটস্অ্যাপে সেই প্রশ্ন ছড়িয়ে পড়ে। গোটা ঘটনা নিয়ে রাজ্যটিতে হইচই শুরু হয়েছে।

কলকাতার বাংলা দৈনিক আনন্দবাজার পত্রিকা বলছে, প্রশ্ন ফাঁস রুখতে রাজ্যের বিভিন্ন জেলায় মোট ৪৩টি ব্লকে পরীক্ষা চলাকালীন ইন্টারনেট বন্ধ রাখা হয়েছিল। পরীক্ষা কেন্দ্রে পুলিশসহ অন্যান্য কর্তৃপক্ষের ছিল কড়া নজরদারি। পরীক্ষাকেন্দ্রের বাইরেও ছিল পুলিশি নিরাপত্তা। এত কিছুর পরেও মাধ্যমিকের প্রশ্ন ফাঁস আটকানো গেল না।

জেলার একটি স্কুল থেকে প্রশ্নটি ফাঁস হয়েছে বলে অভিযোগ। তবে, তার সঙ্গে পরীক্ষাকেন্দ্রে দেওয়া প্রশ্নের মিল রয়েছে কিনা, পরীক্ষা কমিটি খতিয়ে দেখছে। এ বিষয়ে কমিটির সভাপতি কল্যাণময় গঙ্গোপাধ্যায়কে ফোন করা হলে, তিনি আনন্দবাজার পত্রিকার প্রতিবেদকের ফোন ধরেননি। ওই প্রশ্নটি এ বছরের কিনা তা যাচাই করা হচ্ছে।

যে জেলাগুলিতে পরীক্ষা চলাকালীন ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে, তার মধ্যে মালদহের বিভিন্ন ব্লক রয়েছে। এ ছাড়াও মুর্শিদাবাদ, কোচবিহার, উত্তর ও দক্ষিণ দিনাজপুর, জলপাইগুড়ি, বীরভূমসহ কয়েকটি জেলার বিভিন্ন ব্লকে ইন্টারনেট বন্ধ থাকবে বলে প্রশাসনিক সূত্রে জানানো হয়েছিল।

গত বছরও পশ্চিমবঙ্গে হোয়াটসঅ্যাপে মাধ্যমিক পরীক্ষা প্রশ্ন ফাঁস হয়। তাতে সমালোচনার শিকার হয় শিক্ষা পরিষদ। মঙ্গলবার বেলা ১২টা থেকে বাংলা পরীক্ষা শুরু হয়। এত কড়াকড়ির পরেও কীভাবে প্রশ্নফাঁস হলো তা নিয়ে খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে শিক্ষা পরিষদের একটি সূত্র আনন্দবাজারকে জানিয়েছে।

এসএ/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]