ভ্রমণ-বাণিজ্যে হংকংয়ের বিশেষ সুবিধা বাতিল করল যুক্তরাষ্ট্র

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ১০:৪২ এএম, ৩০ মে ২০২০

ভ্রমণ ও বাণিজ্যের ক্ষেত্রে হংকংয়ের বিশেষ সুবিধা বাতিলের ঘোষণা দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। চীনের জাতীয় নিরাপত্তা আইন হংকংয়ে সরাসরি কার্যকরের বিধানকে শহরটির জন্য ‘ট্রাজেডি’ বলেও মন্তব্য করেছেন তিনি।

শুক্রবার হোয়াইট হাউসে এক সংবাদ সম্মেলনে ট্রাম্প বলেন, তিনি হংকংকে আর চীনের স্বায়ত্তশাসিত অঞ্চল মনে করছেন না।

তিনি বলেন, ‘‘চীন ‘এক দেশ, দুই ব্যবস্থা’কে ‘এক দেশ, এক ব্যবস্থা’য় প্রতিস্থাপন করেছে। এটা হংকংয়ের জন্য একটা ট্রাজেডি… চীন হংকংয়ের স্বাধীনতা কেড়ে নিয়েছে।’’

us-3

ট্রাম্প জানান, শহরটির স্বায়ত্তশাসন ভুলুণ্ঠিত করায় জড়িত চীন ও হংকংয়ের কর্মকর্তাদের ওপরও নিষেধাজ্ঞা আরোপ করবে যুক্তরাষ্ট্র। তবে কবে থেকে এবং কী ধরনের নিষেধাজ্ঞা জারি হবে তা নিশ্চিত করেননি তিনি।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জানান, চীনা নজরদারির ঝুঁকি বেড়ে যাওয়ায় হংকং ভ্রমণে সতর্কতাও পুনর্বিবেচনা করবে মার্কিন স্বরাষ্ট্র বিভাগ।

এছাড়া, সম্ভাব্য নিরাপত্তা ঝুঁকি তৈরি হওয়ায় চীন থেকে বিদেশি নাগরিকদের যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশ বন্ধ করে দেবে ওয়াশিংটন। এ সিদ্ধান্তের ফলে যুক্তরাষ্ট্রে হাজার হাজার চীনা শিক্ষার্থীর পড়াশোনা হুমকির মুখে পড়বে বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা।

us-3

এদিন সংবাদ সাম্মলনে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) সঙ্গে সবধরনের সম্পর্ক ছিন্ন করারও ঘোষণা দেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। তিনি বলেন, 'জরুরিভাবে নিজেদের সংস্কারে তারা (ডব্লিউএইচও) আমাদের অনুরোধ রাখতে ব্যর্থ হয়েছে। আমরা আজ থেকে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সঙ্গে আমাদের সম্পর্কের ইতি টানছি। সেখানে করা অর্থায়নের টাকা ফেরত এনে বিশ্বের যেসব জায়গায় মানুষের স্বাস্থ্যের উন্নয়নের দরকার সেখানে খরচ করা হবে।’

করোনাভাইরাস ইস্যুতে চীনের কাছে জবাবদিহিতা দাবি করে মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘এই ভাইরাসের ব্যাপারে বিশ্বের কাছে চীনকে জবাব দিতে হবে। করোনার বিষয়ে চীনের কাছে যেসব তথ্য ছিল তা তারা ঠিকমতো বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাকে জানায়নি। বিশ্বকে বিভ্রান্ত করতে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ওপর চাপ প্রয়োগ করেছিল চীন।’

সূত্র: বিবিসি

কেএএ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]