আত্মহত্যায় প্ররোচনার অভিযোগ, পাকিস্তানে নিষিদ্ধ পাবজি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ১১:৩৩ এএম, ০৩ জুলাই ২০২০

বর্তমান সময়ের অন্যতম জনপ্রিয় অনলাইন গেম প্লেয়ার আননোন’স ব্যাটলগ্রাউন্ডস (পাবজি)। গেমটি নিষিদ্ধ করেছে পাকিস্তান। গেমটির বিরুদ্ধে অসংখ্য অভিযোগ জমা হওয়ায় পাকিস্তান টেলিকমিউনিকেশন অথরিটি (পিটিএ) এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

পাকিস্তানে সাম্প্রতিক সময়ে আত্মহত্যার ঘটনা বৃদ্ধির জন্য দায়ী করা হয়েছে এই গেমকে।

টুইটারে এক বার্তায় পিটিএ বলেছে, পাবজির বিরুদ্ধে পিটিএ’র কাছে অসংখ্য় অভিযোগ জমা পড়েছে। এই গেম এক ধরনের আসক্তি তৈরি করে। আর এতে একবার আসক্ত হয়ে গেলে সময়ের অপচয় হয়।

শুধু তাই নয়; পিটিএ বলছে, পাবজি শিশুদের স্বাস্থ্য এবং মানসিক অবস্থার ওপরে নেতিবাচক প্রভাব ফেলে। তাই অবিলম্বে সব মাধ্যম থেকে এই অনলাইন গেম নিষিদ্ধ করে দেয়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

পাকিস্তানে কয়েকজন পাবজি খেলোয়াড়ের আত্মহত্যার ঘটনা বেশ আলোড়ন সৃষ্টি করেছে। অভিযোগ রয়েছে, এই জনপ্রিয় গেমে আসক্ত হয়েই তারা আত্মহত্যার পথ বেছে নেন। এমনকি বিষয়টি আদালত পর্যন্ত গড়ায়। লাহোর হাইকোর্টের নির্দেশে আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেয়ার অভিযোগ খতিয়ে দেখার জন্য পাবজির বিরুদ্ধে তদন্ত চলছে।

তবে পাবজি নিষিদ্ধ করার বিষয়টি ইমরান খান সরকারের সাময়িক সিদ্ধান্ত। এই বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে জনগণের মতামত চাওয়া হয়েছে। এই গেম নিষিদ্ধ করার নির্দেশিকা আগামীদিনেও বহাল থাকবে? না, তা ফের আগের মতোই চালু থাকবে, সেই বিষয়ে জনমত চাওয়া হয়েছে। আগামী ১০ জুলাইয়ের মধ্যে এই বিষয়ে সমাজের সব স্তরের মানুষের মতামত চাওয়া হয়েছে।

পিটিএ তার বিবৃতিতে জানিয়েছে, অনলাইন গেম পাবজি সম্পর্কে সাধারণ মানুষের মতামত জানার সিদ্ধান্ত নিয়েছে পিটিএ। আগামী ১০ জুলাইয়ের মধ্যে এই বিষয়ে মতামত জানাতে হবে। [email protected] এই আইডিতে মেইল করার জন্য সবাইকে আহ্বান জানিয়েছে পিটিএ।

দক্ষিণ কোরিয়ার ডেভেলপার প্রতিষ্ঠান ব্লুহোলের তৈরি করা অনলাইন ভিডিও গেম প্লেয়ার আননোনস ব্যাটেলগ্রাউন্ডস (পাবজি)। তবে এ বিষয়ে এখনো কোনো প্রতিক্রিয়া জানায়নি পাবজি।

সূত্র : দ্য এক্সপ্রেস ট্রিবিউন

এসআর/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]