যুক্তরাষ্ট্রে ‘ওয়েস্ট নাইল’ ভাইরাসে একজনের মৃত্যু

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৬:০৪ পিএম, ১৩ আগস্ট ২০২০

মশাবাহিত ওয়েস্ট নাইল ভাইরাসে সংক্রমিত হয়ে যুক্তরাষ্ট্রের লস অ্যাঞ্জেলস কাউন্টি থেকে এ বছর প্রথমবারের মতো কারো মৃত্যুর ঘোষণা এসেছে। বুধবার আনুষ্ঠানিক এই ঘোষণা দিয়ে স্থানীয় বাসিন্দাদেরকে মশা নিয়ে আগাম সতর্ক থাকার বিষয়টি আবারও স্মরণ করিয়ে দিয়েছে স্থানীয় কর্তৃপক্ষ।

ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়ে প্রাণ হারানো ওই ব্যাক্তি সাউথ লস অ্যাঞ্জেলসের বাসিন্দা। বয়সে তিনি ছিলেন প্রবীণ। ওয়েস্ট নাইল ভাইরাস সংক্রমিত নিউরোইনভ্যাসিভ নামক রোগে আক্রান্ত হওয়ার পর হাসপাতালে ভর্তি করা হলে সেখানেই তিনি মারা যান বলে স্থানীয় সংবাদমাধ্যমগুলোর প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে।

লস অ্যাঞ্জেলস কাউন্টির স্বাস্থ্য কর্মকর্তা মুন্ট ডেভিস এক বিবৃতিতে বলেছেন, ‘লস অ্যাঞ্জেলসের বাসিন্দাদের জন্য ওয়েস্ট নাইল ভাইরাসটি এখন মারাত্মক স্বাস্থ্য হুমকির কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে’।

স্থানীয় ওই স্বাস্থ্য কর্মকর্তা আরও বলেছেন, ‘বাড়ির ভেতরে কিংবা বাইরে পানি জমে থাকতে পারে কিংবা মশার বংশ বিস্তার হতে পারে এমন কোনো কিছু পরীক্ষা করে দেখা এবং সেসব জিনিসপত্র পরিস্কার করে নিজেদেরকে নিরাপদ রাখার জন্য আমরা লস অ্যাঞ্জেলসের বাসিন্দাদের অনুরোধ করছি’।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, ওয়েস্ট নাইল ভাইরাস সাধারণত কাকজাতীয় পাখির শরীরে সুপ্ত অবস্থায় থাকে। এই ভাইরাসে সংক্রমিত মশা কামড়ালে মানুষ এতে আক্রান্ত হয়। ভাইরাসের কারণে স্নায়ুতন্ত্রের রোগে মানুষের মৃত্যু হতে পারে। আক্রান্ত মানুষের ৮০ শতাংশের রোগের কোনো লক্ষণ দেখা যায় না।

প্রাথমিকভাবে মশাবাহিত এই ভাইরাসের সংক্রমণ মানুষের দেহে ঘটলে জ্বর হয়। যদিও বেশিরভাগ মশা এই ভাইরাস বহন করে না। এখনও এই রোগের বিশেষ কোনো চিকিৎসা নেই। কোনো ধরনের টিকাও তৈরি হয়নি। আনুমানিক হিসাব অনুযায়ী যুক্তরাষ্ট্রে প্রতি বছর এই ভাইরাসে দশ হাজারের বেশি মানুষ আক্রান্ত হয়।

এসএ/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]