নীল নদে রেকর্ডভাঙা বন্যা, হুমকিতে প্রাচীন পিরামিড

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৮:৩২ পিএম, ০৮ সেপ্টেম্বর ২০২০

গত কয়েকদিনে নীল নদের পানি রেকর্ড পরিমাণ বেড়ে যাওয়ায় হুমকিতে পড়েছে ২ হাজার ৩০০ বছরের পুরোনো সুদানের পিরামিডগুলো। আশপাশে বালির বস্তা ফেলে বাঁধ তৈরি করে সেগুলোকে রক্ষার চেষ্টা করছে স্থানীয় কর্তৃপক্ষ।

বন্যার তোড়ে গত শুক্রবার তিন মাসব্যাপী জরুরি অবস্থা ঘোষণা করেছে সুদান সরকার। ইতোমধ্যেই দেশটির ১৮টি অঙ্গরাজ্যের মধ্যে ১৭টিতেই বন্যার পানি প্রবেশ করেছে। এতে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন পাঁচ লাখেরও বেশি মানুষ। গত কয়েকদিনে সেখানে পানিতে ডুবে, ভূমি বা ভবনধসে মারা গেছেন অন্তত ৯৯ জন, ঘরছাড়া হয়েছেন হাজার হাজার মানুষ।

তীর ছাপিয়ে আশপাশের এলাকা প্রায়ই তলিয়ে দেয় নীল নদ। কৃষকরাও উর্বর ভূমির জন্য বন্যার পানির ওপর অনেকটাই নির্ভরশীল। তবে এবারের বন্যায় সেখানে পানি বাড়ছে অস্বাভাবিক গতিতে।

pyramid-1.jpg

সুদানের পানি মন্ত্রণালয়ের বরাতে বার্তা সংস্থা এএফপি জানিয়েছে, নীল নদের প্রধান শাখা ব্লু নীলের পানির উচ্চতা ১৭ দশমিক ৫৭ মিটার বেড়ে গেছে। এক শতাব্দীরও বেশি সময় আগে শুরু হওয়ার পর থেকে এটাই সেখানে পানি বৃদ্ধির সর্বোচ্চ রেকর্ড।

প্রত্নতাত্ত্বিক মার্ক মাইলট জানিয়েছেন, তারা বালির বাঁধ দিয়ে ও পানি নিষ্কাশন করে সুদানের প্রাচীন পিরামিডগুলো রক্ষার চেষ্টা করছেন।

pyramid-1.jpg

তিনি বলেন, বন্যায় আগে কখনও এ স্থানটির ক্ষতি হয়নি। পরিস্থিতি এখনও নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। তবে নীল নদের পানি বাড়তে থাকলে হয়তো আমাদের নেয়া ব্যবস্থাগুলো যথেষ্ট হবে না।

জাতিসংঘের বিশ্ব ঐতিহ্য ঘোষিত সুদানের আল-বাজরাইয়া এলাকাটি নীল নদ থেকে মাত্র ৫০০ মিটার দূরে অবস্থিত। সেখানে কুশ সাম্রাজ্যের শত শত প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শন রয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে পিরামিড, মন্দির, সমাধিক্ষেত্র প্রভৃতি।

সূত্র: বিবিসি

কেএএ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]