সীমান্তে সেনা মৃত্যুর পরেও চীনের কাছ থেকে মোটা ঋণ নিয়েছে ভারত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৩:০৭ পিএম, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২০

সীমান্তে বাজছে যুদ্ধের দামামা। চার দশক পর চীন সীমান্তে আবারও রক্ত ঝরেছে ভারতীয় সেনাদের, প্রাণ হারিয়েছেন ২০ জন। দেশপ্রেমের জিগির তুলে শতাধিক চীনা অ্যাপ নিষিদ্ধ করেছে ভারত সরকার। তবে সেগুলো কি শুধুই লোকদেখানো? প্রশ্নটা এবার সবার মুখেই। কারণ, সীমান্তে এই উত্তেজনার মধ্যেই চীনের একটি ব্যাংক থেকে নয় হাজার কোটি রুপি ঋণ নিয়েছে ভারত।

বুধবার ভারতীয় পার্লামেন্টে চীনের কাছ থেকে ঋণ নেয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন দেশটির কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী অনুরাগ ঠাকুর। তিনি জানিয়েছেন, অবঠামো খাতে উন্নয়নের জন্য চীনের এশিয়ান ইনফ্রাস্ট্রাকচার ইনভেস্টমেন্ট ব্যাংকের (এআইআইবি) সঙ্গে দু’টি ঋণচুক্তি করেছে ভারত সরকার। প্রায় ৩ হাজার ৬৭৬ কোটি রুপির প্রথম চুক্তিটি সই হয় গত ৮ মে। এই অর্থ করোনা মোকাবিলা এবং চিকিৎসা খাতে ব্যয় করা হয়েছে।

দ্বিতীয় ঋণচুক্তিতে প্রায় ৫ হাজার ৫১৪ কোটি রুপি পেয়েছে ভারত। এই চুক্তিটি হয়েছিল গত ১৯ জুন, অর্থাৎ ১৫ জুন সীমান্ত সংঘর্ষে ভারতীয় সেনারা প্রাণ হারানোর চারদিন পরেই।

jagonews24

এই তথ্য সামনে আসার পর থেকেই বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন বিরোধীরা। তাদের দাবি, যুদ্ধ-যুদ্ধ ভাব দেখিয়ে কেন্দ্রীয় সরকার জনগণের চোখে ধুলো দিচ্ছে। কারণ, সীমান্তে যতই উত্তেজনা থাক, চীনের সঙ্গে আর্থিক-কূটনৈতিক সব সম্পর্কই বজায় রেখেছে মোদি সরকার। বলা হচ্ছে, চীনের কাছ থেকে আর্থিক সুবিধা পাচ্ছে বলেই দেশটির বিরুদ্ধে সুর নরম ভারত সরকারের।

সূত্র: সংবাদ প্রতিদিন

কেএএ/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]