করপোরেট প্রতারণা বন্ধ হবে কীভাবে?

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০২:১১ পিএম, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০

বিশ্বে করপোরেট কেলেঙ্কারির ঘটনা বাড়ছে আশঙ্কাজনক হারে। ২০০১ সালে এনরনের হিসাবে গড়মিল থেকে শুরু করে ২০১৬ সালে ওয়েলস ফার্গো ব্যাংকে ভুয়া অ্যাকাউন্ট, এরপর গত জুনে জার্মান আর্থিক প্রতিষ্ঠান ওয়্যারকার্ডের অ্যাকাউন্ট থেকে ১৯০ কোটি ইউরো গায়েব হয়ে যাওয়া। এনরনের ঘটনায় আশ্চর্যজনক বিষয় হচ্ছে, দ্য ফিন্যান্সিয়াল টাইমসের প্রতিবেদনে প্রতিষ্ঠানটির নথিপত্রে সন্দেহজনক কিছু থাকার কথা বলা হয়েছিল। কিন্তু এরপরও জার্মান কর্তৃপক্ষ এনরনের বিরুদ্ধে না গিয়ে উল্টো পত্রিকাটির বিরুদ্ধেই তদন্ত শুরু করে।

ব্যবসা কখন ভুল পথে চলতে শুরু করেছে তা সাধারণ মানুষের পক্ষে বোঝা বেশ কঠিন। সেটা প্রতিষ্ঠানটির ব্যবস্থাপকের জন্যেও সত্য। নির্বাহীদের অগোচরেই বিশেষ কোনও বিভাগে সমস্যা তৈরি হতে পারে। সব কেলেঙ্কারি তো আর পত্রিকার পাতায় আসে না!

যেকোনও প্রতিষ্ঠানের ভেতরই প্রতারণার সংস্কৃতি খুব দ্রুত ছড়িয়ে পড়তে পারে। এ ধরনের ঝামেলা কীভাবে কমানো যায় সে বিষয়ে কলম্বিয়া ও হার্ভার্ড বিজনেস স্কুলের শিক্ষাবিদদের এক সেমিনার পেপারে আলোকপাত করা হয়েছে।

গবেষকরা দেখেছেন, সামনে মাত্রাতিরিক্ত কঠিন লক্ষ্য থাকলে মানুষের মধ্যে মিথ্যা বলা বা প্রতারণার প্রবণতা বেশি থাকে। চাপের মুখে অনেক সময়ই তারা তথ্যগুলো যথেষ্ট বিচার-বিশ্লেষণ করেন না। আর পক্ষপাতের প্রশ্ন আসলে সমস্যা আরও বেড়ে যায়।

jagonews24

গবেষকরা দেখেছেন, মানুষকে কর্মক্ষমতার একটি নির্দিষ্ট লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করে দিলে তারা কাজের ভবিষ্যৎ নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় বাদ দিয়ে অতীত পারফরমেন্সের ওপরই বেশি গুরুত্ব দেন।

সেমিনার পেপারের লেখকরা বলেছেন, সংস্থাগুলো কর্মীদের লক্ষ্যমাত্রা এমনভাবে নির্ধারণ করতে পারে যাতে সেটি তাদের কাছে সুষ্ঠু ও অর্জনযোগ্য মনে হয়। এর মাধ্যমে কর্মীদের মধ্যে উদ্দেশ্যপ্রণোদিত অনৈতিক আচরণের প্রবণতা কমিয়ে আনা সম্ভব।

এছাড়া, নৈতিকতার কৌশলও কাজে লাগানো যায়। দেখা গেছে, চালকদের নৈতিক আচরণবিধিতে সই করতে বললে যখন তারা কাগজের ওপরভাগে সই করছেন, তখন গাড়ির মাইলেজের বিষয়ে বেশি সততা দেখাচ্ছেন।

গবেষকরা বলছেন, অনেক সময় মানুষ সিদ্ধান্ত গ্রহণের ক্ষেত্রে তাড়াহুড়ো করে। এতে ঝুঁকিগুলোকে অবহেলা করা হয়। এ কারণেই কেলেঙ্কারি অবশ্যম্ভাবী হয়ে উঠছে।

সূত্র: দ্য ইকোনমিস্ট

কেএএ/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]