ফ্রি ধুতে বিদেশ সফরে ব্যাগভর্তি ময়লা কাপড় নিয়ে যান নেতানিয়াহু

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০১:১৭ পিএম, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০

রাজকীয় অভ্যর্থনা, বিলাবহুল বাড়ি আর দামী দামী উপহার- রাষ্ট্রীয় সফরে অতিথিদের জন্য এগুলো খুবই সাধারণ বিষয়। কিন্তু ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী ও তার স্ত্রী এদিক থেকে আরও একধাপ এগিয়ে। অভিযোগ উঠেছে, তারা বিদেশ সফরে যাওয়ার সময় ব্যাগভর্তি ময়লা কাপড় নিয়ে যান শুধু বিনামূল্যে ধোয়ানোর জন্য। হোয়াইট হাউস গেস্টহাউসের কর্মীদের বরাতে বৃহস্পতিবার এ তথ্য প্রকাশ করেছে প্রভাবশালী মার্কিন সংবাদমাধ্যম ওয়াশিংটন পোস্ট।

বাহরাইন ও সংযুক্ত আরব আমিরাতের সঙ্গে সম্পর্কোন্নয়ন চুক্তি করতে গত সপ্তাহে যুক্তরাষ্ট্র সফরে গিয়েছিলেন ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু, সঙ্গে ছিলেন তার স্ত্রী সারা নেতানিয়াহু।

নামপ্রকাশে অনিচ্ছুক এক মার্কিন কর্মকর্তা বলেন, ‘নেতানিয়াহুরাই (প্রধানমন্ত্রী ও তার স্ত্রী) একমাত্র ব্যক্তি যারা পরিষ্কার করাতে ব্যাগভর্তি ময়লা কাপড় নিয়ে আসেন। কয়েকবার সফরের পর এটা নিশ্চিত যে, তারা ইচ্ছা করেই কাজটি করেন।’

Netanyahu--3.jpg

তবে ওয়াশিংটন পোস্টের এই খবর ভিত্তিহীন বলে দাবি করেছে যুক্তরাষ্ট্রের ইসরায়েলি দূতাবাস। তাদের বক্তব্য, আমিরাত ও বাহরাইনের সঙ্গে চুক্তির সাফল্য থেকে নজর ঘোরাতেই এমন উদ্ভট দাবি করা হচ্ছে।

এক বিবৃতিতে ইসরায়েলি দূতাবাস বলেছে, সফরে কোনও কিছুই ড্রাই ক্লিন করা হয়নি। শুধু বৈঠকের আগে একজোড়া শার্ট ধুতে দেয়া হয়েছিল মাত্র। আর প্রধানমন্ত্রী ও সারা নেতানিয়াহুর স্যুট ইস্তিরি করানো হয়েছিল। এছাড়া, ইসরায়েল থেকে ওয়াশিংটন যাত্রাপথে ১২ ঘণ্টার ফ্লাইটে প্রধানমন্ত্রী যে দুটি পায়জামা পরেছিলেন, সেগুলো ধুতে দেয়া হয়েছিল।

এবারের যু্ক্তরাষ্ট্র সফরে নেতানিয়াহু দম্পতি কয়টি স্যুটকেস নিয়ে গিয়েছিলেন সেটি জানায়নি ওয়াশিংটন পোস্ট। তবে ওবামা ও ট্রাম্প প্রশাসনের কর্মকর্তারা ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রীর আগের সফরগুলোতে একাধিকবার ব্যাগভর্তি নোংরা কাপড় পরিষ্কার করার তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

Netanyahu--3.jpg

এর আগে, ২০১৮ সালে একটি সরকারি সফরে সারা নেতানিয়াহু চার-পাঁচটি স্যুটকেস ভর্তি করে ময়লা কাপড় নিয়ে গিয়েছিলেন বলে খবর ছড়িয়েছিল। এর দুই বছর আগে ব্যক্তিগত লন্ড্রি বিল গোপন রাখার দাবিতে নিজের অফিস এবং ইসরায়েলি অ্যাটর্নি জেনারেলের বিরুদ্ধে মামলা করেছিলেন নেতানিয়াহু।

গত বছর সরকারি তহবিলের কয়েক হাজার পাউন্ড বিলাসী খানাপিনায় ব্যয় করার অভিযোগ উঠেছিল সারা নেতানিয়াহুর বিরুদ্ধে। সম্প্রতি ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগে তিনটি মামলার শুনানি চলছে।

কেএএ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]