ট্রাম্প-বাইডেনের ঝগড়ায় বদলে যাচ্ছে বিতর্কের নিয়ম

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০২:৩২ পিএম, ০১ অক্টোবর ২০২০

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট প্রার্থীদের বিতর্ক অনুষ্ঠানে নতুন নিয়ম আনতে যাচ্ছেন আয়োজকরা। এক্ষেত্রে, প্রতিদ্বন্দ্বীর বক্তব্যে কেউ বাধা দিলে তার মাইক্রোফোন বন্ধ করে দেয়ার নিয়ম চালু হতে পারে বলে জানা গেছে।

গত মঙ্গলবার রাতে প্রথম বিতর্কে মুখোমুখি হয়েছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও এবারের নির্বাচনে তার প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী জো বাইডেন। কিন্তু, অনুষ্ঠানে বাইডেনের কথা মধ্যে একাধিকবার বাধা দেন ট্রাম্প। দু’জনের বাকবিতণ্ডে উত্তপ্ত হয়ে উঠেছিল বিতর্কের মঞ্চ। এসময় শিষ্টাচারের সীমা ছাড়িয়ে একে অপরকে ব্যক্তিগত আক্রমণও করেন দুই নেতা।

ডোনাল্ড ট্রাম্প বাইডেনের বুদ্ধিমত্তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন। বিপরীতে, বাইডেন ট্রাম্পকে ভাঁড় বলে মন্তব্য করেছেন। এছাড়া, বক্তব্যের মধ্যে কথা বলায় একপর্যায়ে ধমক দিয়ে প্রেসিডেন্টকে চুপ করতে বলেছেন এ ডেমোক্র্যাট নেতা।

বিতর্ক শান্তিপূর্ণভাবে পরিচালনায় ব্যর্থতার দায়ে সঞ্চালক ক্রিস ওয়ালেসের সমালোচনা করেছেন অনেকেই। যদিও তার প্রতি পূর্ণ সমর্থন জানিয়েছে বিতর্কের আয়োজক কমিশন অন প্রেসিডেন্সিয়াল ডিবেট (সিপিডি)।

jagonews24

এক বিবৃতিতে তারা বলেছে, ক্রিস ওয়ালেস গতরাতে যে পেশাদারিত্ব ও দক্ষতা দেখিয়েছেন তার জন্য কমিশন কৃতজ্ঞ। বাকি বিতর্কগুলোতে নিয়ম বজায় রাখতে অতিরিক্ত সরঞ্জাম নিশ্চিত করা হবে।

আয়োজকরা জানিয়েছেন, মঙ্গলবারের বিতর্ক এটি পরিষ্কার করে দিয়েছে যে, বাকি বিতর্কগুলো আরও নিয়মতান্ত্রিক পদ্ধতিতে পরিচালনা করতে বাড়তি উপাদান যোগ করতে হবে। সিপিডি পরিবর্তনীয় বিষয়গুলো বিবেচনা করছে এবং শিগগিরই সেগুলো চূড়ান্তের পর ঘোষণা করা হবে।

মার্কিন সংবাদমাধ্যমগুলোর তথ্যমতে, রাজনৈতিক দলগুলোকে নতুন নিয়মের বিষয়ে জানানো হবে। তবে এগুলো নিয়ে তাদের আলোচনা বা সমঝোতার কোনও সুযোগ থাকবে না।

ট্রাম্পের নির্বাচনী প্রচারণা সংশ্লিষ্টরা ইতোমধ্যেই এধরনের সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ জানিয়েছেন।

সূত্র: বিবিসি

কেএএ/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]