১০৯ বছরের আইবিএম ভেঙে দুটি কোম্পানি হচ্ছে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৯:৪১ পিএম, ০৯ অক্টোবর ২০২০

বিশ্বের প্রথম বৃহৎ কম্পিউটিং কোম্পানি ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস মেশিন বা আইবিএম বিভক্ত হয়ে দুটি কোম্পানিতে পরিণত হচ্ছে। ক্লাউড কম্পিউটিং ও আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স ব্যবসায় নজর বাড়ানোর লক্ষ্যে পৃথক দুটি পাবলিক কোম্পানি তৈরি করার এমন ঘোষণা দিয়েছে ১০৯ বছর পুরানো এই মার্কিন কোম্পানি।

বিবিসির শুক্রবারের অনলাইন প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, ক্লাউড কম্পিউটিং এবং কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার (এআই) মতো বড় বড় ব্যবসায়িক খাতগুলোতে মনোযোগ বাড়ানোর লক্ষ্যে এমন পদক্ষেপ নিল আইবিএম।

আইবিএম জানিয়েছে, আইটি অবকাঠামো সেবা বিভাগকে নিয়ে গঠিত এই কোম্পানির নাম পরে জানানো হবে এবং ২০২১ সাল থেকে বাজারে ছাড়া হবে সেই কোম্পানির শেয়ার। নতুন কোম্পানি গঠনের এমন ঘোষণার পর পুঁজিবাজারে আইবিএম এর শেয়ারের মূল্য ৬ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে বলে জানাচ্ছে বিবিসি।

বিশ্বের প্রথম কম্পিউটিং কোম্পানিটি ঐতিহ্যবাহী ব্যবসা থেকে অন্যদিকে মনযোগী হওয়ার ইঙ্গিত আগে থেকেই দিচ্ছিল। যার সবশেষ উদাহরণ এই পদক্ষেপ। সফটওয়্যার বিক্রিতে ধীর গতি এবং মেইনফ্রেম সার্ভারের মৌসুমি চাহিদার কারণে আয় পুষিয়ে নিতে সাম্প্রতিক বছরগুলোতে ক্লাউডে নজরও বাড়িয়েছে।

আইবিএম এর প্রধান নির্বাহী অরবিন্দ কৃষ্ণ এ প্রসঙ্গে বলেন, ‘আমরা ৯০ এর দশকের নেটওয়ার্কিং, ২০০০ এর দশকের কম্পিউটার আর প্রায় পাঁচ বছর আগের সেমিকন্ডাক্টর থেকে সরে এসেছি। কারণ এগুলো পুরনো হয়ে গেছে। আর এ কারণেই আমরা আবারও আমাদের ব্যবসায়িক মনযোগ ভিন্নখাতে দেয়ার চেষ্টা করছি।’

বিবিসি লিখেছে, গত বছর ক্লাউড কোম্পানি রেড হ্যাটের সঙ্গে আইবিএম এর তিন হাজার ৪০০ কোটি মার্কিন ডলারের চুক্তির পেছনের কারিগরও ছিলেন অরবিন্দ কৃষ্ণা। বর্তমানে ক্লাউড কম্পিউটিংয়ে রাজত্ব করছে অ্যামাজনের ওয়েব সার্ভিস এবং কম্পিউটার জগতে বিখ্যাত আরেক মার্কিন প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান মাইক্রোসফট।

অরবিন্দ কৃষ্ণার এই পদক্ষেপকে স্বাগত জানিয়েছেন কোম্পানির বিনিয়োগকারীরা। বর্তমানে কোম্পানিটর কর্মীসংখ্যা ৩ লাখ ৫২ হাজারের বেশি। আইবিএম বলছে, কোম্পানি বিভক্তকরণে ব্যয় হবে ৫০০ কোটি ডলার।

এসএ/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]