লেবাননের নতুন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে হারিরির নাম ঘোষণা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৬:৩১ পিএম, ২২ অক্টোবর ২০২০

১৯৭৫ থেকে ১৯৯০ সালের গৃহযুদ্ধের পর গত আগস্টের বৈরুত বিস্ফোরণ ঘিরে গভীর সঙ্কটে নিমজ্জিত হওয়া লেবাননে নতুন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে সুন্নিপন্থী রাজনীতিক সাদ আল-হারিরিকে মনোনীত করেছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট মাইকেল আওন। বৃহস্পতিবার সাবেক এই প্রধানমন্ত্রীকে সঙ্কট মোকাবিলায় নতুন সরকার গঠনে মনোনয়ন দেয়া হয় বলে খবর দিয়েছে ব্রিটিশ বার্তাসংস্থা রয়টার্স।

প্রেসিডেন্ট মাইকেল আওনের সঙ্গে বৈঠকে সংসদের সংখ্যাগরিষ্ঠ সদস্যের সমর্থন জিতেছেন হারিরি। লেবাননের ক্ষমতা ভাগাভাগির রাজনীতিতে বেশ কিছু বড় ধরনের চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হয়েছেন তিনি।

দেশটিতে বর্তমানে ব্যাংকিং-মুদ্রা খাতের সঙ্কট, রাষ্ট্রীয় ঋণ ও দারিদ্রতা বৃদ্ধির মতো কঠিন চ্যালেঞ্জ রয়েছে। তবে সব সঙ্কট মোকাবিলায় মন্ত্রিসভা গঠনে রাজি হয়েছেন সাদ হারিরি।

নতুন সরকারকে করোনাভাইরাস মহামারির পাশাপাশি গত আগস্টে বৈরুতের বিস্ফোরণে ছিন্ন ভিন্ন হয়ে যাওয়া অর্থনীতির চাকা সচল করার কাজে রীতিমতো লড়াই করতে হবে।

আগস্টে বৈরুতের একটি রাসায়নিক গুদামে ভয়াবহ বিস্ফোরণে দুই শতাধিক মানুষের প্রাণহানি ও কয়েক বিলিয়ন ডলারের অর্থনৈতিক ক্ষতির পর সরকারের পদত্যাগের দাবিতে তীব্র আন্দোলন গড়ে উঠে। পরে দেশটির ক্ষমতাসীন প্রধানমন্ত্রী পুরো মন্ত্রিসভাসহ পদত্যাগ করেন।

লেবাননের ক্ষমতাসীন এলিটদের বিরুদ্ধে তীব্র আন্দোলনের জেরে ঠিক এক বছর আগে ক্ষমতা থেকে বিদায় নিতে বাধ্য হয়েছিল সাদ হারিরি নেতৃত্বাধীন তৎকালীন জোট সরকার।

দেশটিতে নতুন সরকার গঠন নিয়ে গত কয়েক সপ্তাহ ধরে নানামুখী আলোচনা ও দর কষাকষির পর বৃহস্পতিবার সাদ হারিরির প্রধানমন্ত্রী হিসেবে মনোনীত হওয়ার খবর এল।

লেবাননের শিয়াপন্থী রাজনৈতিক দল আমল পার্টি, দ্রুজ পার্টি, রাজনীতিক ওয়ালিদ জাম্বলাতের পার্টি ও অন্যান্য ছোট ছোট কিছু দল সাদ হারিরিকে সমর্থন দিয়েছে। দেশটির শিয়াপন্থী গোষ্ঠী হিজবুল্লাহ বলছে, তারা এখন পর্যন্ত কাউকে মনোনয়ন দেয়নি। তবে তারা মনোনয়ন প্রক্রিয়া সহজ করবে বলে জানিয়েছে।

এদিকে, প্রেসিডেন্ট আওনের শ্যালকের রাজনৈতিক দল এফপিএম পার্টি বলছে, তারা সাদ হারিরিকে মনোনীত করবে না। এই দলটির প্রতি দেশটির খিষ্টানদের বৃহৎ সমর্থন রয়েছে।

সূত্র: রয়টার্স।

এসআইএস/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]