স্মরণকালের সবচেয়ে ভয়াবহ মন্দা কাটিয়ে উঠছে এশিয়া

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৮:০৮ পিএম, ২২ অক্টোবর ২০২০

মহামারিতে স্মরণকালের সবচেয়ে ভয়াবহ মন্দার মুখে পড়া এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের অর্থনীতি ঘুরে দাঁড়াচ্ছে। এমনটাই মনে করছে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল আইএমএফ। তবে এর আগে চলতি বছর এই অঞ্চলের প্রবৃদ্ধি মাইনাস ১.৬ শতাংশ হবে বলে পূর্বাভাস দিলেও এখন তা মাইনাস ২.২ শতাংশ করা হয়েছে।

অবশ্য এ বছর ঋণাত্মক প্রবৃদ্ধির পূর্বাভাস দিলেও আগামী বছর এই অঞ্চলের প্রবৃদ্ধি ৭ শতাংশ হবে বলে পূর্বাভাস দিচ্ছে আইএমএফ। সংস্থাটি বলছে, আগামী বছরের প্রবৃদ্ধিতে সবচেয়ে বড় ভূমিকা থাকবে চীনের। সাম্প্রতিক তথ্য-উপাত্তেও দেখা যাচ্ছে, করোনার সংক্রমণ প্রতিরোধে করে অনেকটা ঘুরে দাঁড়িয়েছে চীনের অর্থনীতি।

তবে এই আশার আকাশেও দেখা যাচ্ছে কালো মেঘ। কেননা ভারত, ফিলিপাইন ও মালয়েশিয়ার মতো দেশগুলো এখনও করোনার বিরুদ্ধে লড়ছে। বিনিয়োগ কমে যাওয়ার কারণে এর দীর্ঘস্থায়ী ক্ষতির কথা তুলে আইএমএফ বলছে, ‘এই সংকটের ক্ষত হবে গভীর। দশকের মাঝামাঝি এর প্রভাব বেশ ভালোভাবেই টের পাওয়া যাবে।’

আইএমএফ বলছে, ভারতের অর্থনীতি এ বছর ১০.৩ শতাংশ সংকুচিত হবে। জুনে অবশ্য ৪.৫ শতাংশের পূর্বাভাস দেয়া হয়েছিল। জুনে ৩.৬ শতাংশ সংকোচনের পূর্বাভাস দিলেও ফিলিপাইনের অর্থনীতি ৮.৩ শতাংশ সংকুচিত হওয়ার পূর্বাভাস দেয়া হয়েছে। মালয়েশিয়ার প্রবৃদ্ধি হবে ঋণাত্মক ৬ শতাংশ। জুনে ছিল ৩.৮ শতাংশ।

খুশির খবর হলো, ২০২১ সালে এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের প্রবৃদ্ধি ৬.৯ শতাংশের পূর্বাভাস দেয়া হয়েছে। তবে এটা নির্ভর করছে অনেকগুলো বিষয়ের ওপর। এই অঞ্চলের দেশগুলোর করোনা প্রতিরোধ করার বিষয়টি অন্যতম। এ ছাড়া বিশ্বের বৃহৎ দুই অর্থনীতি; যুক্তরাষ্ট্র ও চীনের বাণিজ্যযুদ্ধের বিষয়টি তো রয়েছেই।

বিবিসিকে দেয়া সাক্ষাতকারে আইএমএফের এশিয়া প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক জনাথন অস্ট্রে বলেন, ‘এটা এমন কিছু, যা রফতানিমুখী অঞ্চলের এগিয়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে একটি বড় ঝুঁকি হতে চলেছে। আমরা কেবল চীন ও যুক্তরাষ্ট্রে নয়, বরং বৃহত্তর প্রযুক্তিগত কেন্দ্রগুলোর ক্ষতির বিষয় নিয়ে উদ্বিগ্ন।’

তিনি আরও বলেন, ‘যখন প্রয়োজন হয় তখন সঠিক নীতি ও আন্তর্জাতিক সমর্থন নিয়ে এশিয়া আবার একত্র হয়ে কাজ করতে পারে এবং এই অঞ্চলকে সামনে এগিয়ে নিয়ে যেতে পারে। তবে অন্যতম চ্যালেঞ্জ হলো রফতানি নির্ভরতা কমিয়ে এশিয়ার অর্থনীতিকে বৈচিত্র্যময় করে তোলা; যা নিয়ে আইএমএফ কাজ করছে।’

এসএ/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]