পোল্যান্ডে ত্রুটিযুক্ত ভ্রূণ সংক্রান্ত গর্ভপাত আইন বাতিল

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ১১:৫৮ এএম, ২৩ অক্টোবর ২০২০

ত্রুটিযুক্ত ভ্রূণের কারণে গর্ভপাতের অনুমতি দেয়া আইনকে অসাংবিধানিক বলে রায় দিয়েছে পোল্যান্ডের শীর্ষ আদালত। বৃহস্পতিবার (২২ অক্টোবর) ১৩ সদস্যের সাংবিধানিক আদালতে দুই বিচারপতি ছাড়া সবাই এই রায়ের পক্ষে ভোট দিয়েছেন। খবর এপির।

ইউরোপে গর্ভপাত সংক্রান্ত আইনগুলোর মধ্যে যে বড় ফাঁক ছিল সেটা এই রায়ের মাধ্যমে বন্ধ করে দেয়া হয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে। তবে চলমান মহামারির এই সময়টাতে এত বড় একটা সিদ্ধান্ত নেয়ার জন্য দেশটির সাবেক প্রধানমন্ত্রী এর সমালোচনা করেছেন। এছাড়া আদালতের এ সিদ্ধান্তের সঙ্গে একমত নন মানবাধিকার কর্মীরাও।

ইউরোপের মানবাধিকার কাউন্সিলের কমিশনার ডুনজা মিজাতোভিক লিখেছেন, ‘নারী অধিকারের জন্য এটা একটি দুঃখের দিন।' দেশটির সাবেক প্রধানমন্ত্রী ডোনাল্ড টাস্কও মহামারির সময়ে এই ধরনের সিদ্ধান্তের সমালোচনা করেন।

poland-2

এই রায়ের এক ঘণ্টা পরে মহামারির নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে আদালতের সামনে বিক্ষোভ করেন শতাধিক তরুণ। বিক্ষোভকারীদের হাতে থাকা প্ল্যাকার্ডে নানা স্লোগান লেখা ছিল।

এরপরে বিক্ষোভকারীরা দেশটির শাসক দল কনজারভেটিভ পার্টি অফিস, বিচারপতি এবং ডেপুটি প্রধানমন্ত্রী জারোস্লা কাৎজেনিস্কির বাসভবনের দিকে যান। বিক্ষোভকারীরা সরকারের পদত্যাগ চেয়ে স্লোগান দিচ্ছিলেন। এ সময় আন্দোলনকারীদের সাথে পুলিশের বাগবিতণ্ডা হয়। বিক্ষোভকারীদের কাছ থেকে ব্যানার কেড়ে নিয়ে তাদের ছত্রভঙ্গ করতে পিপার গ্যাস স্প্রে করে পুলিশ।

poland-2

এ ব্যাপারে দলের মুখপাত্র বলেন, আদালতের নতুন এ আদেশের কারণে জন্ম নেয়া শিশুদের ও তাদের মায়েদের জন্য শিগরিগই নতুন আইন প্রণয়নের প্রস্তাব করা হবে।

পোল্যান্ডের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের পরিসংখ্যান বলছে, ২০১৯ সালে পোল্যান্ডে এক হাজার ১১০টি গর্ভপাত হয়েছে, যার বেশিরভাগ ভ্রূণের ত্রুটির কারণে।

আদালত তার সিদ্ধান্তের পক্ষে বলছে, ‘জীবনের সুরক্ষার চেয়ে কোনো ব্যক্তি মর্যাদার সুরক্ষা বড় হতে পারে না'।

এনএফ/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]