স্টোর বন্ধ করে ইউরোপ থেকে ব্যবসা গুটিয়ে নিচ্ছে গ্যাপ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৬:০৩ পিএম, ২৫ অক্টোবর ২০২০

যুক্তরাজ্যে সব স্টোর বন্ধ করে দেয়ার কথা জানিয়েছে অন্যতম মার্কিন খুচরা পোশাক বিক্রেতা কোম্পানি গ্যাপ। ফলে হাজার হাজার কর্মী ছাঁটাইয়ের শঙ্কা তৈরি হয়েছে। এক বিবৃতিতে গ্যাপ জানিয়েছে, আগামী গ্রীষ্মের মধ্যে যুক্তরাজ্য, ফ্রান্স, আয়ারল্যান্ড ও ইতালিতে স্টোর বন্ধ করে দেবে তারা। খবর বিবিসি অনলাইনের। 

মার্কিন এই খুচরা বিক্রেতা প্রতিষ্ঠানটি শুধু স্টোর নয় যুক্তরাজ্যভিত্তিক ইউরোপীয় সরবরাহ কেন্দ্রও বন্ধ করে দেয়ার কথা জানিয়েছে। তবে যুক্তরাজ্যে তাদের কতটি স্টোর আছে এবং স্টোরগুলোতে মোট কতজন কর্মী কাজ করেন, এ বিষয় গ্যাপের পক্ষ থেকে এখনও আনুষ্ঠানিকভাবে কোনো কিছুই জানানো হয়নি।  

বিগত কয়েক বছর ধরেই ব্যাপক হারে বিক্রি কমে গেছে গ্যাপের। এর পর মহামারি করোনার সংক্রমণে বিশ্বজুড়ে মানুষের চলাচলে বিধিনিষেধ আর লকডাউন নিষেধাজ্ঞার কারণে পরিস্থিতি হয়েছে আরও খারাপ। শুধু তাই নয় চলতি বছরের মার্চ থেকে মে; এই তিন মাসেই কোম্পানিটর লোকসান হয়েছে ৭৪ কোটি পাউন্ড। 

স্টোরে চেয়ে গ্যাপ সম্পূর্ণরুপে ফ্রাঞ্চাইজিভিত্তিক ব্যবসার পরিকল্পনা করছে। এর মাধ্যমে কোম্পানিটির ব্রান্ড নেম ব্যবহার করে যে কেউ তাদের পণ্য বিক্রি করতে পারবে। কিন্তু এর মুনাফার অংশীদার হবে তারা। বিবিসি জানাচ্ছে, জুলাইয়ের শেষ নাগাদ ইউরোপজুড়ে গ্যাপের ১২৯টি ব্রান্ড স্টোর ও ৪০০টি ফ্রাঞ্চাইজি স্টোর ছিল। 

গ্যাপ ব্র্যান্ড গ্লোবালের প্রধান মার্ক ব্রেটবার্ড এ প্রসঙ্গে বলেন, ‘নানা বিষয় পর্যালোচনা করে আমরা এখন অংশিদারত্বের মডেলের ভিত্তিতে ব্যবসা সম্প্রসারণের অংশ হিসেবে তৃতীয় পক্ষের কাছে তা স্থানান্তরিত করতে আগ্রহী।’ গ্যাপের এক মুখপাত্র বলেন, তারা ইউরোপীয় ই-বাণিজ্য পরিচালনার বিকল্প উপায়গুলোও দেখছেন।

এসএ/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]