‘দেশীয় শিল্পকে বাঁচাতে’ চীনা পণ্য বয়কটের ডাক ভারতের ব্যবসায়ীদের

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ১২:৫২ পিএম, ২৯ অক্টোবর ২০২০

ভারতে দীপাবলি উৎসবকে সামনে রেখে সবধরনের চীনা পণ্য বয়কটের ডাক দিয়েছে দেশীয় ব্যবসায়ীদের সংগঠন কনফেডারেশন অব অল ইন্ডিয়া ট্রেডার্স (সিএআইটি)। এতে রফতানি খাতে আনুমানিক ৪০ হাজার কোটি টাকার ক্ষতির সম্মুখীন হতে পারে চীন।

ভারতীয় গণমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদনে এমন তথ্য পাওয়া গেছে।

দীপাবলি উৎসবকে ঘিরে ভারতে ৭০ হাজার কোটি টাকার পণ্য বেচাকেনা হয়। এর সিংহভাগই চীনা পণ্য। সোনা-রুপার গহনা থেকে শুরু করে প্রদীপ-মোমবাতি পর্যন্ত সবধরনের চীনা পণ্য বিক্রি হয় এই উৎসবে। তবে চীনকে কোণঠাসা করতে এবার দীপাবলিতে সব ধরনের চীনা পণ্য বিক্রি না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে স্থানীয় ব্যবসায়ীরা। এতে বিপাকে পড়েছেন চীনা রফতানিকারকরা।

দীপাবলিতে আত্মনির্ভর ভারত গড়ার আহ্বান জানিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এই আহ্বানে সাড়া দিয়েছেন ব্যবসায়ীরা। সিএআইটির দাবি, স্থানীয় সাত কোটি ব্যবসায়ী এই উদ্যোগে শামিল আছেন।

তবে চীনা পণ্যের ওপর ভারতীয় বাজার যেভাবে নির্ভরশীল সেক্ষেত্রে তাদের পণ্য বর্জন করা কতটা সম্ভব সে ব্যাপারে অনেকে প্রশ্ন তুলেছেন।

তারা বলছেন, দেশীয় শিল্পকে বাঁচাতে এ ধরনের পদক্ষেপ খুবই জরুরি। তবে প্রথমেই চীনা পণ্য পুরোপুরি বর্জন করা সম্ভব নয়।

তবে অনেক আগে থেকেই এ ব্যাপারে প্রস্তুতি নেয়া শুরু হয়েছে বলে টাইমস অব ইন্ডিয়াকে জানিয়েছেন সিএআইটির সাধারণ সম্পাদক প্রদীপ খান্ডেলওয়াল।

তিনি জানান, রাজ্যে রাজ্যে কনফেডারেশনকে এই বিষয়ে উদ্যোগ নিতে বলা হয়েছে। ছোট ছোট শিল্প সংস্থা বা বেকার যুবকদের এই সব পণ্য উৎপাদনের জন্য সহায়তা করা হচ্ছে। এজন্য বেশ কয়েকটি জায়গায় প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা হয়েছে। দোকান মালিকরা নতুন পণ্য নেয়ার ক্ষেত্রে দেশীয় পণ্যকে অগ্রাধিকার দিচ্ছেন।

এসআর/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]