ট্রাম্পের পরাজয় মেনে নেওয়া উচিত : ওবামা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০১:১৮ পিএম, ১৬ নভেম্বর ২০২০

সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা বলেছেন বিদায়ী প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের এখন পরাজয় মেনে নেওয়ার সময় এসেছে। জো বাইডেনের জয় মেনে নিতে নিয়ে তাকে হার মেনে নিতে হবে। ওবামা বলেছেন, নির্বাচনের ফলাফল উল্টে যাওয়ার কোনো সম্ভাবনা নেই।

গত শনিবার ব্যাটলগ্রাউন্ড নর্থ ক্যারোলাইনা ও জর্জিয়ায় ভোটের গণনা আর পুনর্গণনা পর্ব শেষ হয়েছে। ফলাফলে ইতোমধ্যেই প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জয়ী ঘোষিত ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বাইডেন ৩০৬টি ইলেকটোরাল কলেজে জয় পেয়েছেন। তার রিপাবলিকান প্রতিদ্বন্দ্বী তথা বিদায়ী প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের ঝুলিতে পড়েছে ২৩২টি ভোট।

তবে এখনও আনুষ্ঠানিকভাবে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের চূড়ান্ত ফল ঘোষণা হয়নি। যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ৫৩৮টি ইলেকটোরাল ভোটের মধ্যে সংখ্যাগরিষ্ঠতার জন্য প্রয়োজনীয় ‘ম্যাজিক ফিগার’ ২৭০ আগেই ছুঁয়ে ফেলায় জো বাইডেনের জয় আগে থেকেই নিশ্চিত ছিল। মার্কিন গণমাধ্যমগুলোও তাকেই বিজয়ী ঘোষণা করেছে।

তবে প্রথম থেকেই পরাজয় মেনে নিতে অস্বীকৃতি জানিয়ে আসছেন ট্রাম্প। তিনি বার বার ভোট জালিয়াতির অভিযোগ তুলেছেন। যদিও নির্বাচনের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট ফেডারেল কর্মকর্তারা জানিয়েছেন যে, তার এই দাবি মিথ্যা। ভোট জালিয়াতির কোনো প্রমাণ পাওয়া যায়নি।

বড় ব্যবধানে ট্রাম্পের কাছে হেরে গেলেও তা মানতে নারাজ ট্রাম্প। তার অভিযোগ, নির্বাচনে জালিয়াতি করে জয়ী হয়েছেন জো বাইডেন।

রোববার এক টুইট বার্তায় ট্রাম্প বলেন, ‘তিনি জিতেছেন, তবে নির্বাচনে জালিয়াতি করে।’

ট্রাম্প দাবি করেন, ‘নির্বাচনে কোনো পর্যবেক্ষক ছিল না। ভোট গণনা করেছে কট্টর বামপন্থী ব্যক্তিমালিকানার প্রতিষ্ঠান ডমিনিয়ন, যাদের বিরুদ্ধে অনেক দুর্নাম রয়েছে। তাদের সরঞ্জামগুলো খুবই বাজে, যা টেক্সাসের ভোট গণনার জন্যেও যথাযথ ছিল না।’

এদিকে, সিবিএনএস নিউজকে দেওয়া এক সাক্ষাতকারে বারাক ওবামা বলেন, অবশ্যই তাকে (ট্রাম্পকে) এখন পরাজয় স্বীকার করে নিতে হবে।

সাবেক এই মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘আমি মনে করি এটাই সময়, তাকে অবশ্যই এটা মেনে নিতে হবে। আপনারা যদি সংখ্যার দিকে তাকান তবে দেখবেন জো বাইডেনই জয়ী হয়েছেন। এই ফলাফল উল্টে যাওয়ার কোনো সম্ভাবনা নেই।’

তবে ট্রাম্প মেনে না নিলেও সারাবিশ্ব ইতোমধ্যে বাইডেনের জয়ের কথা জেনে গেছে। এমনকি বিশ্বের বিভিন্ন দেশের নেতারাও তাকে অভিনন্দন জানিয়েছেন এবং যুক্তরাষ্ট্রের পরবর্তী সরকারের সঙ্গে সহযোগিতামূলক সম্পর্কের বিষয়ে আশ্বস্ত করেছে অনেক দেশই।

টিটিএন/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]