ট্রাম্পের অভিযোগ শুনলোই না উইসকনসিন সুপ্রিম কোর্ট

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ১১:১৬ এএম, ০৪ ডিসেম্বর ২০২০

গতমাসে অনুষ্ঠিত প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ব্যাপক কারচুপির অভিযোগে ডোনাল্ড ট্রাম্পের দায়ের করা মামলা আমলেই নিল না উইসকনসিনের সুপ্রিম কোর্ট। বৃহস্পতিবার তার ওই আবেদন খারিজ করে দিয়েছেন সর্বোচ্চ আদালত। এসময় বলা হয়েছে, সরাসরি সুপ্রিম কোর্টে নয়, দরকার হলে নিম্ন আদালতের রায় নিয়ে তারপর সর্বোচ্চ আদালতে আসতে হবে ট্রাম্পকে।

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলো জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার উইসকনসিন সুপ্রিম কোর্টে ট্রাম্পের মামলা বিষয়ক রুলের পক্ষে পড়ে তিন ভোট, আর বিপক্ষে ছিলেন চারজন বিচারপতি। ফলে রাজ্যটিতে সরাসরি সুপ্রিম কোর্টে আইনি লড়াইয়ের পথ বন্ধ হয়ে গেছে ট্রাম্প শিবিরের।

জানা গেছে, সুপ্রিম কোর্টে উইসকনসিনের ডেমোক্র্যাটশাসিত দু’টি কাউন্টির ২ লাখ ২১ হাজারের বেশি ব্যালট বাতিলের আবেদন করেছিলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। সেখানে অ্যাবসেন্টি ব্যালটে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ তুলেছিলেন তিনি।

নিম্ন আদালতে আইনি লড়াইয়ের জন্য যথেষ্ট সময় নেই দাবি করে ওই মামলা নিয়ে সরাসরি সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হন যুক্তরাষ্ট্রের বর্তমান প্রেসিডেন্ট। কিন্তু সেখানেও খালি হাতে ফিরতে হলো তাকে।

ট্রাম্পের আশা ছিল, উইসকনসিন সুপ্রিম কোর্টে রক্ষণশীল বিচারপতিরা সংখ্যাগরিষ্ঠ হওয়ায় তার অভিযোগ সহজেই আমলে নেয়া হবে। তবে বিচারপতি ব্রায়ান হেইজডর্ন তিন উদারপন্থী বিচারপতির পক্ষে গিয়ে মামলা আমলে নেয়ার বিপক্ষে ভোট দেয়ায় আশাভঙ্গ হয় রিপাবলিকানদের।

Trump-2

এ বিষয়ে বিচারপতি হেইজডর্ন বলেছেন, আইন অনুসারে এটা পরিষ্কার যে, ট্রাম্পের মামলাটি অবশ্যই নিম্ন আদালত ঘুরে আসতে হবে।

তিনি বলেন, আমরা বিচার বিভাগীয় প্রতিষ্ঠান হিসেবে সময়-পরীক্ষিত বিচারিক নিয়মগুলো মেনে চলতে পারি, এমনকি হাই প্রোফাইলদের ক্ষেত্রেও।

রক্ষণশীল এ বিচারপতি বলেন, আমার কিছু সহকর্মীর মতে, এটি অনুসরণ করলে আমাদের দায়িত্বে অবহেলা করা হচ্ছে না। এটি আইন মেনেই চলছে।

তবে হেইজডর্নের এ সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করে প্রধান বিচারপতি পেশেন্স রোজেনস্যাক বলেছেন, তিনি ট্রাম্পের মামলাটি গ্রহণ করতেন এবং সত্য অনুসন্ধানের জন্য সেটি নিম্ন আদালতে পাঠাতেন, যা পরে রায় ঘোষণার জন্য সুপ্রিম কোর্টকে জানানো যেত।

চলতি সপ্তাহে উইসকনসিনে ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বাইডেনকে আনুষ্ঠানিকভাবে বিজয়ী ঘোষণা করা হয়েছে। এতে ব্যাটলগ্রাউন্ড রাজ্যটির ১০টি ইলেকটোরাল ভোট ডেমোক্র্যাটদের ঝুলিতে যাওয়া নিশ্চিত হয়েছে।

গত ৩ নভেম্বরের মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ব্যাপক ভোট জালিয়াতির অভিযোগ তুলে হেরে যাওয়া অঙ্গরাজ্যগুলোতে মামলার ঝড় তুলেছিলেন ট্রাম্প সমর্থকেরা। তবে উপযুক্ত প্রমাণ দেখাতে না পারায় বেশিরভাগ জায়গাতেই খারিজ হয়ে গেছে মামলাগুলো। এ তালিকায় সবশেষ গত ২১ নভেম্বর যোগ হয়েছে ব্যাটলগ্রাউন্ড পেনসিলভানিয়া। সেখানে ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রচারণা দলের দায়ের করা মামলাটি খারিজ করে দিয়েছেন এক জেলা জজ আদালত।

সূত্র: অ্যাসোসিয়েটেড প্রেস

কেএএ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]