বিশ্বজুড়ে খাদ্যদ্রব্যের রেকর্ড দাম

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৯:৫৮ পিএম, ০৪ ডিসেম্বর ২০২০

গোটা বিশ্বেই খাবারের দাম রেকর্ড বেড়েছে বলে সতর্ক করেছে জাতিসংঘের খাদ্য বিষয়ক সংস্থা ফাও। সংস্থাটি বলছে, মহামারিতে কর্মসংস্থান হারানো এবং আয় কমে যাওয়া জনগোষ্ঠী এতে বাড়তি চাপে পড়েছে।

করোনাভাইরাস যে এবার খাদ্যদ্রব্যের সংকট তৈরি করলো তা সংস্থাটির সম্প্রতি প্রকাশিত প্রতিবেদনে স্পষ্ট। তাতে খাদ্যদ্রব্যের দাম বৃদ্ধির সঙ্গে মহামারিকালে বিশ্বজুড়ে খাবারের হাহাকার বাড়ছে বলেও সতর্ক করা হয়েছে।

জাতিসংঘের খাদ্য ও কৃষি বিষয়ক অঙ্গসংস্থাটি জানাচ্ছে, বিশ্বের ৪৫ দেশে খাদ্যের প্রবল সংকট তৈরি হয়েছে। এর ৩৪টি দারিদ্র্যপীড়িত আফ্রিকার। সাহায্য না পেলে এসব দেশে মানুষ না খেতে পেয়ে মারা যেতে পারেন।

অপরদিকে মহামারি করোনার প্রকোপের কারণেই গত ছয় বছরের মধ্যে রেকর্ড দাম ছুঁয়েছে গোটা বিশ্বের খাদ্যদ্রব্য। পরিস্থিতি এমনটা চলতে থাকলে সামনে দাম আরও বাড়বে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

ইতালির রোমভিত্তিক সংস্থাটির সম্প্রতি প্রকাশিত ওই প্রতিবেদনে আরও জানানো হয়েছে, ২০১৪ সালের পর গত নভেম্বরে গোটা বিশ্বের খাদ্যদ্রব্যের দাম রেকর্ড মাত্রায় বৃদ্ধি পেয়েছে। দেখা দিয়েছে খাবারের সংকট।

একাধিক খাদ্যদ্রব্যকে নিয়ে এক একটি বাসকেট বা ঝুড়ি তৈরি করে এই সংস্থাটি। এর পর গোটা বিশ্বে তাদের দামের অনুপাত তৈরি করে একটি পয়েন্ট বের করা হয়। এর মাধ্যমেই নির্ধারণ হয় খাবারের দাম বৃদ্ধির বিষয়টি।

এবার সবচেয়ে বেশি বেড়েছে ভোজ্য তেলের দাম। বিশ্ববাজারে পাম তেলের দাম বৃদ্ধির কারণেই ভোজ্য তেলের দাম বেড়েছে প্রায় ১৪ দশমিক পাঁচ শতাংশ। চাল, গম, ভুট্টা, জোয়ারসহ একাধিক সিরিয়ালের দামও বেড়েছে।

এদিকে আরেক নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য চিনির দাম বেড়েছে তিন দশমিক তিন শতাংশ। গত বছর দুগ্ধজাত খাবার এবং মাংসের দাম ১৩ দশমিক ৭ শতাংশ কমেছিল। কিন্তু এ বছর তা প্রায় এক শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে।

সংকটে পড়া দরিদ্র দেশগুলো সাহায্য না পেলে পরিস্থিতি ভয়াবহ হওয়ার আশঙ্কা প্রকাশ করে প্রতিবেদনে এও বলা হয়েছে যে, করোনা মহামারির প্রকোপ না কমলে বিশ্বজুড়ে চলমান এই খাদ্যসংকট আরও বাড়বে।

সূত্র: ডয়েচে ভেলে

এসএ/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]