দুর্নীতি: অস্ট্রিয়ার সাবেক অর্থমন্ত্রীর ৮ বছর কারাদণ্ড

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৬:৩০ পিএম, ০৫ ডিসেম্বর ২০২০

দেশের প্রথম সারির একটি দুর্নীতির সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ার পর সাবেক অর্থমন্ত্রী কার্ল-হেইনজ গ্রাসারকে আট বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন ইউরোপের দেশ অস্ট্রেলিয়ার একটি আদালত।

বিবিসি জানাচ্ছে, কার্ল-হেইনস সরকারি মালিকাধীন হাজার হাজার অ্যাপার্টমেন্ট বিক্রির প্রকল্পে অর্থ আত্মসাৎ, ঘুষ গ্রহণ ও চুক্তির নথি বিকৃতির সঙ্গে জড়িত বলে দোষী সাব্যস্ত করে শুক্রবার এই রায় দেন আদালত।

ভিয়েনার আদালত গ্রাসার ৯০ লাখের বেশি ইউরো ঘুষ নিয়েছেন বলে প্রমাণ পাওয়ার কথা জানালেও কার্ল-হেইনস এমন অপরাধের কথা অস্বীকার করে রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করবেন বলে জানিয়েছেন।

২০০০ সালের অস্ট্রিয়ার সবচেয়ে কমবয়সী অর্থমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করে কার্ল-হেইনস। তবে শুধু সাবেক অর্থমন্ত্রী নয় মোট ১৪ জন অর্থ পাচার, ঘুষ গ্রহণ ও চুক্তির নথি বিকৃতির দায়ে হওয়া মামলার আসামী।

আদালত বলছে, ষাট হাজার অ্যাপার্টমেন্ট বিক্রির সময় নিলামের তথ্য সুনির্দিষ্ট একটি প্রতিষ্ঠানের কাছে পাচার করেন গ্রাসার ও একজন মধ্যস্থতারী। এতে প্রতিদ্বন্দ্বীদের হারিয়ে সহজেই ওই প্রতিষ্ঠান প্রকল্পটি হাতিয়ে নেয়।

ষাট হাজার অ্যাপার্টমেন্ট ওই প্রতিষ্ঠান কিনে নেয় ৯৬১ মিলিয়ন ইউরোতে। তবে এর তিন বছরের মাথায় তারা ওই প্রতিষ্ঠানগুলোর যে দাম হাকায় তা তাদের ক্রয়মূল্য ৯৬১ মিলিয়ন ইউরোর চেয়ে তিনগুণ বেশি।

ঘুষ হিসেবে ক্রয়মূল্যের ১% (৯৬ লাখ ইউরো) ফ্রিডম পার্টি অব অস্ট্রিয়ার সাবেক সাধারণ সম্পাদক ওয়াল্টার মিশবের্গার ও লবিস্ট গোশেগারকে দেয়। দুর্নীতির দায়ে মিশবের্গার ও গোশেগারকেও কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।

এসএ/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]