এবার স্ন্যাপচ্যাটে স্থায়ীভাবে নিষিদ্ধ হলেন ট্রাম্প

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৩:০০ পিএম, ১৪ জানুয়ারি ২০২১

মার্কিন পার্লামেন্ট ভবন ইউএস ক্যাপিটলে হামলার ঘটনার পর একের পর এক সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বন্ধ হয়ে যাচ্ছে বিদায়ী প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের অ্যাকাউন্ট। মাল্টিমিডিয়া মেসেজ প্লাটফর্ম স্ন্যাপচ্যাট গত সপ্তাহে ট্রাম্পের অ্যাকাউন্ট সাময়িকভাবে বন্ধ করে দিয়েছিল। বুধবার তা স্থায়ী রূপ দিল প্রতিষ্ঠানটি। খবর সিএনএন’র।

স্ন্যাপচ্যাটের এক মুখপাত্র বিবৃতিতে বলেছেন, ‘গত সপ্তাহে আমরা প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের অ্যাকাউন্ট অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধের ঘোষণা দিয়েছিলাম। স্ন্যাপচ্যাট কমিউনিটির মঙ্গলের স্বার্থে আর কী দীর্ঘমেয়াদী পদক্ষেপ নেয়া যায় তা নিয়ে আমরা চিন্তাভাবনা করছিলাম।’

তিনি বলেন, ‘মিথ্যা তথ্য ও ঘৃণা ছড়ানো এবং সহিংসতায় উসকানি দেয়া আমাদের নীতিমালার পরিষ্কার লঙ্ঘন। তাই এসব অভিযোগের প্রেক্ষিতে জনস্বার্থে আমরা তার অ্যাকাউন্টটি স্থায়ীভাবে বন্ধের সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’

জো বাইডেনের বিজয়কে অনুমোদন দেয়ার দিন ক্যাপিটল ভবনে ট্রাম্প সমর্থকদের হামলার পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলো উসকানিমূলক কনটেন্ট নিয়ন্ত্রণে ব্যাপকভাবে সক্রিয় হয়েছে। এক্ষেত্রে ডোনাল্ড ট্রাম্পের অ্যাকাউন্টগুলো নিয়ে কী করা যায় সেদিকে বিশেষভাবে নজর দেয়া হয়েছে।

গত সপ্তাহে ফেসবুক জানায়, অনির্দিষ্টকাল পর্যন্ত অথবা অন্তত ক্ষমতা ছাড়ার আগ পর্যন্ত তারা ট্রাম্পের অ্যাকাউন্টে কোনো পোস্ট দেয়ায় নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে। ক্যাপিটল ভবনে হামলার পর ট্রাম্পের অন্যতম জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটার তার অ্যাকাউন্টটি সাময়িকভাবে বন্ধ ঘোষণা করে। এর কয়েক দিন পরেই তারা অ্যাকাউন্টটি স্থায়ীভাবে বন্ধ করে দেয়।

এদিকে মঙ্গলবার ইউটিউব জানায়, নীতিমালা লঙ্ঘনের দায়ে তারা অন্তত এক সপ্তাহ পর্যন্ত ট্রাম্পের চ্যানেলে কোনো ভিডিও আপলোডের সুযোগ বন্ধ করে দিয়েছে।

এমকে/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]