মমতাকে ‘আধা লাখ’ ভোটে হারানোর চ্যালেঞ্জ শুভেন্দুর

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ১০:০১ পিএম, ১৮ জানুয়ারি ২০২১

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কড়া সমালোচনা করে কিছুদিন আগেই তার সঙ্গ ছেড়েছেন শুভেন্দু অধিকারী। যোগ দিয়েছেন কেন্দ্রে ক্ষমতাসীন বিজেপিতে। এবার মমতার সঙ্গে একই আসনে নির্বাচন করে অন্তত আধা লাখ (৫০ হাজার) ভোটের ব্যবধানে জিততে না পারলে রাজনীতিই ছেড়ে দেবেন বলে চ্যালেঞ্জ জানিয়েছেন এ সাবেক তৃণমূল নেতা।

বিজেপিতে যোগ দেয়ার পরে সোমবারই কলকাতায় প্রথম কর্মসূচি ছিল শুভেন্দুর। এদিন টালিগঞ্জ ট্রাম ডিপো থেকে রাসবিহারী পর্যন্ত মিছিল করেছেন রাজ্য বিজেপির নেতা-কর্মীরা।

মিছিল শেষে সভায় শুভেন্দু অধিকারী পরিষ্কার ঘোষণা দেন, ‘নন্দীগ্রামে মাননীয়াকে (মমতা) যদি হাফ লাখ ভোটে হারাতে না পারি, তাহলে রাজনীতিই ছেড়ে দেবো।’

এদিন দুপুরে শুভেন্দুর ডেরা বলে পরিচিত নন্দীগ্রামে নিজে প্রার্থী হবেন ঘোষণা করে চমক দিয়েছেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এর কিছুক্ষণ পরেই তৃণমূলের গড় বা মমতার দীর্ঘদিনের লোকসভা কেন্দ্র দক্ষিণ কলকাতায় মিছিল করেন শুভেন্দু। এসময় তার সঙ্গে ছিলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষও।

jagonews24

বিজেপির সেই মিছিলে সংঘর্ষের ঘটনাও ঘটেছে। অবশ্য দলটির দাবি, তৃণমূল কর্মীরাই তাদের মিছিলে ইট-পাটকেল ছুড়েছে। একারণে বিজেপি সমর্থকেরা জবাব দিতে তাদের লাঠি নিয়ে তাড়া করেন।

সংঘর্ষের সময় রাস্তার পাশে থাকা কয়েকটি মোটরসাইকেল ভাঙচুর হয়। মিছিল শেষে রাসবিহারীতে সমাবেশ করে বিজেপি। সেখান থেকে মমতার উদ্দেশে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দেন সদ্য দলত্যাগী নেতা শুভেন্দু।

তিনি বলেন, ‘আমি এখন একটা শৃঙ্খলাবদ্ধ দলের সদস্য, আর তৃণমূল প্রাইভেট লিমিটেড কোম্পানি। দেড়জনের পার্টি। মঞ্চে দাঁড়িয়ে মাননীয়া কোম্পানির সিদ্ধান্ত ঘোষণা দিলেও আমি তা পারি না। বিজেপিতে ওটা করা যায় না।’

নন্দীগ্রামে প্রার্থী হওয়ার বিষয়ে আশাপ্রকাশ করে শুভেন্দু জোরগলায় বলেন, ‘দল আমাকে প্রার্থী করুক বা অন্য কাউকে, পদ্ম প্রতীকে যেই লড়ুক, মাননীয়াকে হারাবই হারাব!’

সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা

কেএএ/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]