মিয়ানমারে বিক্ষোভে পুলিশের গুলিতে আরও এক নারী নিহত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৫:৫৯ পিএম, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১

মিয়ানমারে সামরিক বাহিনী ক্ষমতা দখলের পর থেকে কয়েক সপ্তাহ ধরেই বিক্ষোভ অব্যাহত রয়েছে। শনিবারও সামরিক সরকারের বিরুদ্ধে রাজপথে বিক্ষোভ করেছে সাধারণ মানুষ।

এদিকে, বিক্ষোভ প্রতিহত করতে নজিরবিহীন পদক্ষেপ নিয়েছে মিয়ানমারের পুলিশ। গত তিন সপ্তাহের মধ্যে প্রথমবার পুলিশ সবচেয়ে বেশি সহিংস হয়ে উঠেছে। রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বিক্ষোভে পুলিশের গুলিতে আরও এক নারী নিহত হয়েছেন। এছাড়া আরও ডজনখানেক বিক্ষোভকারীকে আটক করা হয়েছে।

সম্প্রতি জাতিসংঘে মিয়ানমারের বিশেষ দূত কিয়াউ মোয়ে তান সংস্থাটির এক অধিবেশনে সামরিক বাহিনীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার আহ্বান জানানোর পরই এই সহিংসতার ঘটনা ঘটল। সাহসী এই দূত জাতিসংঘের কাছে আহ্বান জানিয়েছেন যে, তার দেশে সামরিক অভ্যুত্থানের বিরুদ্ধে সংস্থাটি যেন প্রয়োজনীয় যে কোনো পদক্ষেপ গ্রহণ করে। স্বদেশের শাসকগোষ্ঠীর বিরুদ্ধে একজন রাষ্ট্রদূতের এমন অবস্থানকে নজিরবিহীন বলছেন বিশ্লেষকরা।

চলতি মাসের ১ তারিখে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার এই দেশটিতে অভ্যত্থানের মাধ্যমে ক্ষমতা গ্রহণের পর থেকেই চাপের মুখে রয়েছে সেনাবাহিনী।

গত বছরের নভেম্বরে অনুষ্ঠিত দেশটির সাধারণ নির্বাচনে ভোট জালিয়াতির অভিযোগ এনেই মূলত বেসামরিক সরকারকে উৎখাত করা হয়েছে। তবে নির্বাচন কমিশন বলছে, নির্বাচন সুষ্ঠু ছিল।

jagonews24

গত নির্বাচনে অং সান সু চির ন্যাশনাল লীগ ফর ডেমোক্রেসি (এনএলডি) জয় লাভ করায় নতুন সরকার গঠনের কথা ছিল। কিন্তু সেনাবাহিনীর হস্তক্ষেপে তা বাতিল হয়ে যায়।

সামরিক বাহিনীর এভাবে আকস্মিক অভ্যুত্থানের মাধ্যমে ক্ষমতা দখলের ঘটনায় বিশ্বজুড়ে নিন্দার ঝড় বয়ে যাচ্ছে। অনেক দেশই সীমিত আকারে দেশটির সেনা কর্মকর্তাদের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে।

শনিবার সকাল থেকেই বিভিন্ন শহরে বিক্ষোভকারীদের প্রতিহত করতে অবস্থান গ্রহণ করে পুলিশ। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, ইয়াঙ্গুনে বিক্ষোভে জড়ো হওয়া লোকজনকে আটক করেছে পুলিশ। বেশ কয়েকজন সাংবাদিককেও গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

মিয়ানমারের তিনটি সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, মোনওয়া শহরে এক নারী গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা গেছেন। তবে কোন পরিস্থিতিতে তাকে গুলি করা হয়েছে তা এখনও পরিষ্কার নয়। এ বিষয়ে তাৎক্ষণিকভাবে পুলিশের কাছ থেকেও কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি।

টিটিএন/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]