টিকায় ৮০ শতাংশেরও বেশি অসুস্থতার ঝুঁকি কমায়

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৯:২১ এএম, ০২ মার্চ ২০২১

৮০ বছর বা তার বেশি বয়সী ব্যক্তিদের ক্ষেত্রে অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকা অথবা ফাইজার-বায়োটেক উৎপাদিত করোনা টিকার প্রথম ডোজ নিলেই কোভিড-১৯ রোগের স্বাস্থ্য ঝুঁকি ৮০ শতাংশেরও বেশি হ্রাস পায়। যুক্তরাজ্যের এক সাম্প্রতিক গবেষণায় বিষয়টি উঠে এসেছে। খবর- বিবিসি।

পাশাপাশি, সত্তরোর্ধ্ব ব্যক্তিদের ক্ষেত্রে টিকা নেয়ার পর করোনা সংক্রমণের লক্ষণ ৬০ শতাংশ পর্যন্ত কমে যায় বলেও এই গবেষণায় উঠে এসেছে।

টিকাদান কর্মসূচি শুরুর তিন থেকে চার সপ্তাহের মাথায় ৮০ বছর বয়সীদের ওপর জরিপ চালিয়ে দেশটির জনস্বাস্থ্য বিভাগ এ তথ্য জানিয়েছে। এতে অংশ নেয়া ব্যক্তিদের সবাই ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ নিয়েছেন।

দেশটির সরকারি বিজ্ঞানীরা এই তথ্যে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন। তবে সম্পূর্ণ সুরক্ষার জন্য টিকার দুটি ডোজই নেয়া প্রয়োজন বলে তারা মনে করেন।

গত সপ্তাহে স্কটিশ কর্তৃপক্ষও একই তথ্য জানিয়েছিল।

যুক্তরাজ্যের স্বাস্থ্যমন্ত্রী সোমবার (১ মার্চ) এক ব্রিফিংয়ে নতুন ভ্যাকসিনের কার্যকারিতা ‘অত্যন্ত শক্তিশালী’ বল মন্তব্য করেছেন।

নতুন জরিপের উদ্ধৃতি দিয়ে তিনি বলেন, ‘গত কয়েক সপ্তাহ ধরে যুক্তরাজ্যে কী কারণে ৮০ বছরেরও বেশি বয়সী ব্যক্তিদের আইসিইউতে ভর্তির পরিমাণ কমেছে তা এই জরিপের ফলাফল দ্বারা সহজে অনুমান করা যায়।’

দেশটির স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের আশা, আগামী কয়েক মাসের মধ্যেই চলমান টিকাদান কর্মসূচির সুফল পেতে যাচ্ছেন তারা। তবে কোভিড-১৯ এর বিরুদ্ধে সঠিকভাবে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হলে টিকার দ্বিতীয় ডোজের কোনো বিকল্প নেই বলেও সতর্ক করে দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

যুক্তরাজ্যে এখন পর্যন্ত দুই কোটিরও বেশি মানুষকে প্রথম ডোজ টিকা দেয়া হয়েছে। যা দেশটির মোট প্রাপ্তবয়স্ক নাগরিকদের এক-তৃতীয়াংশ।

এসএস/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]