আপত্তিকর ভিডিও ফাঁস, পদত্যাগ করলেন কর্ণাটকের মন্ত্রী

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ১০:২৮ এএম, ০৪ মার্চ ২০২১

ভারতে কাজ দেয়ার নাম করে এক নারীর সঙ্গে যৌন সম্পর্কে লিপ্ত হওয়ার অভিযোগ উঠেছিল কর্ণাটকের জলসম্পদমন্ত্রী রমেশ ঝারকিহোলির বিরুদ্ধে। এমন কি বিভিন্ন গণমাধ্যমে ভাইরাল হয়েছিল তার একটি ভিডিও। নানা বিতর্কের পর বুধবার (৩ মার্চ) নিজের পদ থেকে তিনি সরে দাঁড়ান। খবর ভারতীয় গণমাধ্যমের।

বুধবার ঝারকিহোলি রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী বিএস ইয়েদুরাপ্পার কাছে তার পদত্যাগপত্র জমা দেন এবং তিনি তা গ্রহণ করে ইতোমধ্যে রাজ্যপালের কাছে পাঠিয়েও দিয়েছেন।

ঝারকিহোলি কর্ণাটকের গোকাকের বিজেপির বিধায়ক। এছাড়া বেলাগাভি জেলায় দলীয় সংগঠনের শীর্ষ পদেও রয়েছেন। সম্প্রতি বিভিন্ন গণমাধ্যমে তার একটি ভিডিও ভাইরাল হয়। যেখানে কাজ পাইয়ে দেয়ার নাম করে একজন নারীর সঙ্গে যৌন সম্পর্কে লিপ্ত হওয়ার অভিযোগ ওঠে। যা সারা ভারতে হইচই পড়ে যায়।

যদিও তিনি তা অস্বীকার করে বলেছেন, ভিডিওটি ভুয়া। তিনি এই ধরনের কোনো কাজের সঙ্গে যুক্ত নন এবং নিজের পদ থেকে পদত্যাগ করতেও অস্বীকার করেছিলেন। যদিও শেষপর্যন্ত পদত্যাগ করলেন তিনি।

jagonews24

এদিকে এই ঘটনাটি সামনে আসার পর বিজেপির সমালোচনায় মুখর হয়েছেন বিরোধীরা। অনেকেই প্রতিবাদে রাস্তায় নেমেছেন। অভিযুক্ত বিজেপি বিধায়কের শাস্তির দাবি তুলেছেন অনেকে। দীনেশ কাল্লাহাল্লি নামে এক সমাজকর্মী ওই মন্ত্রীর নামে পুলিশে এফআইআরও দায়ের করেছেন।

এ বিষয়ে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রহ্লাদ যোশী বলেন, ‘গণমাধ্যমে আমি বিজেপি মন্ত্রীর ওই ভিডিওটি দেখেছি। এ বিষয়ে কর্ণাটকের মুখ্যমন্ত্রী বিএস ইয়েদুরাপ্পা ও দলের সর্বভারতীয় সভাপতির সঙ্গে কথা বলবো। যে ভিডিওটি প্রকাশিত হয়েছে, সেটির সত্যতা যাচাইয়ের পর পরবর্তী পদক্ষেপ ঠিক করা হবে।’ যদিও ইতোমধ্যে নিজের পদ থেকে সরে দাঁড়ালেন ঝারকিহোলি।

এআরএ/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]