দম ছাড়ল নিউজিল্যান্ড, ১৩ ঘণ্টা পর সুনামি সতর্কতা প্রত্যাহার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ১২:১৭ পিএম, ০৫ মার্চ ২০২১

অবশেষে স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলল নিউজিল্যান্ডবাসী। মাত্র কয়েক ঘণ্টার ব্যবধানে পরপর সাত মাত্রার চেয়ে শক্তিশালী তিনটি ভূকিমম্প আঘাত হানায় দেশটির বিশাল অংশে জারি করা সুনামি সতর্কতা তুলে নেওয়া হয়েছে।

নিউজিল্যান্ড হেরাল্ডের খবর অনুসারে, স্থানীয় সময় শুক্রবার ভোররাত ২টা ২৭ মিনিটে নর্থ আইল্যান্ড থেকে প্রায় ৯০০ কিলোমিটার দূরে ৭ দশমিক ৩ মাত্রার ভূমিকম্প আঘাত হানে। এরপর ভোর ৬টা ৪১ মিনিটে উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় কেরমাডেক আইল্যান্ডে আঘাত করে ৭ দশমিক ৪ মাত্রার ভূমিকম্প। আর সকাল ৮টা ২৮ মিনিটে ওই এলাকা আবারও কাঁপিয়ে দেয় ৮ দশমিক ১ মাত্রার প্রচণ্ড শক্তিশালী আরেকটি ভূমিকম্প।

পরপর একাধিক ভূমিকম্পের জেরে নর্থ আইল্যান্ডের বেশিরভাগ এলাকায় জরুরি সুনামি সতর্কতা জারি করেছিল নিউজিল্যান্ডের জাতীয় জরুরি ব্যবস্থাপনা সংস্থা। পরে স্থানীয় সময় দুপুর ১টা ২৫ মিনিটে সতর্কতা কিছুটা নামিয়ে আনে তারা। আর বিকেল ৩টার পর সুনামি সতর্কতা পুরোপুরি তুলে নিয়েছে সংস্থাটি।

অকল্যান্ডবাসীদের জানানো হয়েছে, ভয়ংকর সুনামি ঢেউ দূরে সরে গেছে। একারণে সেখানে সবধরনের জাতীয় সতর্কতা প্রত্যাহার করা হয়েছে।

নিউজিল্যান্ডের জরুরি ব্যবস্থাপনা মন্ত্রী কিরি অ্যালান জানিয়েছেন, এখন আর সমুদ্র সৈকতে যেতে কারও বাধা নেই। তরপরও উপকূলীয় এলাকাগুলোতে সবাইকে বাড়তি সতর্কতা অবলম্বনের আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

ভূমিকম্পের পরপরই সুনামির আশঙ্কায় উপকূলীয় এলাকা থেকে দ্রুত সব বাড়ি, স্কুল ও অফিসের লোকজন নিরাপদ আশ্রয়ে সরিয়ে নেয় কর্তৃপক্ষ। পুরোপুরি খালি করে দেওয়া হয় ওপোতিকির মতো কয়েকটি শহর।

বিভিন্ন মাধ্যমে প্রচারিত ভিডিওতে পূর্ব উপকূলীয় তোকুমারু বে এলাকার সৈকতে বিশাল বিশাল ঢেউ আছড়ে পড়তে দেখা গেছে।

কেএএ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]