মাল্টায় বেড়াতে গেলেই নগদ অর্থ উপহার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৯:৫৫ পিএম, ১১ এপ্রিল ২০২১

মহামারিতে পুরো বিশ্বের পর্যটন শিল্প মুখ থুবড়ে পড়েছে। তবে এই শিল্পকে চাঙ্গা করতে ভিন্ন এক পদক্ষেপ নিয়েছে ছোট্ট দ্বীপরাষ্ট্র মাল্টা।

ভূমধ্যসাগরের মাঝে অবস্থিত এই দ্বীপে তিনদিন অবস্থান করলে বিদেশি পর্যটকদের প্রত্যেককে ২০০ ইউরো দেবে দেশটির সরকার। যা বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ২০ হাজার ১২৪ টাকা। গ্রীষ্মের ছুটিতে যারা মাল্টায় ঘুরতে যাবেন তাদের এই অর্থ দেয়া হবে।

রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়, শুক্রবার (৯ এপ্রিল) মাল্টার পর্যটনমন্ত্রী ক্লেটন বার্তোলো এই স্কিমটির ঘোষণা দেন।

তিনি জানান, ১ জুনের মধ্যে দ্বীপরাষ্ট্রের বেশিরভাগ করোনা বিধিনিষেধ উঠে যাবে। এ সময় যেসব পর্যটক গ্রীষ্মের ছুটিতে স্থানীয় হোটেলের মাধ্যমে বুকিং করবেন, তারা এই টাকা পাবেন।

jagonews24

মাল্টার পর্যটনমন্ত্রী বলেন, যারা পাঁচতারকা হোটেলের বুকিং দেবেন, তারা মাল্টার ট্যুরিজম কর্তৃপক্ষ থেকে ১০০ ইউরো পাবেন। আর বাকি ১০০ ইউরো সেই হোটেল কর্তৃপক্ষ দেবে।

আর যারা চারতারকা হোটেল বেছে নেবেন তারা মোট ১৫০ ইউরো পাবেন। তিনতারকা হোটেল বুকিং দিলে ১০০ ইউরো দেয়া হবে।

এছাড়া মাল্টার মূল ভূখণ্ড থেকে তিন কিলোমিটার উত্তরে ছোট দ্বীপ গোজোর হোটেলগুলো বুকিং করলে ১০ শতাংশ বেশি টাকা পাবেন পর্যটকরা।

ওয়ার্ল্ড ট্র্যাভেল অ্যান্ড ট্যুরিজম কাউন্সিলের তথ্য অনুযায়ী, মাল্টার অর্থনীতির ২৭ শতাংশ প্রত্যক্ষ এবং পরোক্ষভাবে পর্যটনের উপর নির্ভরশীল। কিন্তু ২০২০ সালে শুরু হওয়া মহামারিতে দেশটির পর্যটনশিল্প ক্ষতিগ্রস্ত হয়।

জেডএইচ/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]