যুক্তরাষ্ট্রের কূটনীতি ‘ভুয়া’ : উত্তর কোরিয়া

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৪:৫৬ পিএম, ০২ মে ২০২১

যুক্তরাষ্ট্রের কূটনীতিকে ‘ভুয়া’ বলে আখ্যায়িত করে ওয়াশিংটনের সঙ্গে সংলাপের সম্ভাবনা বাতিল করে দিয়েছে উত্তর কোরিয়া। উত্তর কোরিয়াকে পরমাণু নিরস্ত্রীকরণের জন্য যুক্তরাষ্ট্র প্রস্তুত রয়েছে, বাইডেন প্রশাসনের এমন মন্তব্যের একদিন পরেই দেশটি এই প্রতিক্রিয়া জানাল।

রোববার উত্তর কোরিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা কেসিএনএ’র মাধ্যমে এক বিবৃতিতে বলেছে, যুক্তরাষ্ট্রের কূটনীতি হল তাদের শত্রুতাপূর্ণ আচরণ ঢাকার ‘ভুয়া সাইনবোর্ড’।

প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনকে সতর্ক করে দিয়ে বিবৃতিতে আরও বলা হয়, তিনি উত্তর কোরিয়ার প্রতি ‘সেকেলে’ অবস্থান নিয়ে ‘সাঙ্ঘাতিক ভুল’ করছেন।

অপর একটি বিবৃতিতে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় দেশটির সর্বোচ্চ নেতা কিম জং-উনকে অপমানের জন্য বাইডেনকে দায়ী করে। এতে বলা হয়, ‘আমরা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকে যথেষ্ট হুঁশিয়ারি দিয়েছি যে তাদের বোঝা উচিত, আমাদের উস্কানি দিলে তারা ক্ষতিগ্রস্থ হবে।’

বুধবার কংগ্রেসে দেয়া প্রথম ভাষণে বাইডেন বলেন, উত্তর কোরিয়ার পারমাণবিক উচ্চাকাঙ্ক্ষা বন্ধ করতে তিনি ‘কূটনীতির পাশাপাশি কঠোর অবরোধ’ প্রয়োগ করবেন।

শুক্রবার হোয়াইট হাউসের পক্ষ থেকে বলা হয়, উত্তর কোরিয়াকে পুরোপুরি পরমাণু নিরস্ত্রীকরণের লক্ষ্যে তারা এখনও অবিচল রয়েছে।

বাইডেনের প্রেস সেক্রেটারি জেন সাকি বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্র একটি সতর্কতামূলক কার্যকরী পদক্ষেপ নেবে যা হবে কূটনৈতিক প্রয়োগের জন্য উন্মুক্ত।’

কী ধরণের কূটনৈতিক পদক্ষেপ নেয়া হবে সে বিষয়েও কিছুটা ইঙ্গিত দেন সাকি। তিনি জানান, পূর্ববর্তী প্রশাসন থেকে বাইডেন অভিজ্ঞতা নিয়েছেন যারা উত্তর কোরিয়ার স্বৈরতন্ত্র অথবা সাম্প্রতিককালের পারমাণবিক উচ্চাকাঙ্ক্ষার সঙ্গে সমঝোতা করতে কয়েক দশক ধরে সংগ্রাম করেছে।

এপ্রিলে দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুন জায়ে-ইন পরমাণু নিরস্ত্রীকরণের বিষয়ে কিমের সঙ্গে সরাসরি সম্পৃক্ত হতে জো বাইডেনকে অনুরোধ জানান।

এমকে/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]