সংঘাত বন্ধের আহ্বান আমেরিকার, ফিলিস্তিনি নেতাদের এরদোয়ানের ফোন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৪:৩৬ এএম, ১১ মে ২০২১ | আপডেট: ০৪:৪৩ এএম, ১১ মে ২০২১

ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকায় ইসরায়েলি বাহিনীর সিরিজ বিমান হামলার পর দুই পক্ষকে উত্তেজনা কমানোর আহ্বান জানিয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিনকেন বলেছেন, সব পক্ষকে পরিস্থিতি শান্ত করতে উত্তেজনা কমাতে হবে। এজন্য বাস্তবনির্ভর পদক্ষেপের দিকে মনোযোগী হতে হবে।

এদিকে গাজায় ইসরায়েলের হামলার নিন্দা জানিয়েছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান। হামলার পর এরদোয়ান ফিলিস্তিনের রাষ্ট্রপতি মাহমুদ আব্বাস ও হামাস নেতা ইসমাইল হানিয়াকে ফোন ​করে ইসরায়েলের সন্ত্রাস ও দখলদারিত্ব বন্ধে মুসলিম বিশ্বের সঙ্গে ঐক্যবদ্ধ হয়ে সন্ত্রাসমুক্ত বিশ্ব গড়ার সর্বাত্মক প্রতিশ্রুতি দেন।

jagonews24.com

বিমান হামলায় গাজায় হতাহতের ঘটনার পর সব পক্ষকে শান্ত থাকার আহ্বান জানিয়েছে জার্মানি। দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী হাইকো মাস টুইট বার্তায় বলেছেন, গাজা থেকে ইসরায়েলের বেসামরিক নাগরিকদের লক্ষ্য করে রকেট হামলা এবং তার পাল্টা জবাবে গাজায় ইসরায়েলের বিমান হামলা কোনোটিই গ্রহণযোগ্য ও ন্যয়সঙ্গত নয়। এমন সংঘাত কখনই সমাধানের পথ বের করে না। এর পরিবর্তে যুক্তিযুক্ত পদক্ষেপের দিকে এগোতে হবে।

এদিকে, টুইট বার্তায় মার্কিন কংগ্রেস সদস্য ইলহান ওমর বলেছেন, গাজায় বিমান হামলা চালিয়ে বেসামরিক মানুষ হত্যা অবশ্যই ইসরায়েলের সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড। ফিলিস্তিনিরা সুরক্ষার দাবিদার। কিন্তু ইসরায়েলের মতো ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা ফিলিস্তিনি নাগরিকদের রক্ষার জন্য নেই।

jagonews24.com

তবে হামলার পর প্রতিক্রিয়ায় ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনজামিন নেতানিয়াহু বলেছেন, হামাস সহ্যের সীমা অতিক্রম করেছে। তারা রেডলাইন অতিক্রম করায় ইসরায়েল পাল্টা জবাব দিতে শুরু করেছে। ইসরায়েল সর্বোচ্চ শক্তি নিয়ে পাল্টা জবাব দেবে। যারা ইসরায়েলে আক্রমণ করবে, তাদের অবশ্যই চড়া মূল্য দিতে হবে। তবে চলমান এই সংঘাত স্বল্প সময়ের জন্য চলতে পারে বলে মনে করেন ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী।

jagonews24.com

সোমবার (১০ মে) স্থানীয় সময় সন্ধ্যার দিকে ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকায় ইসরায়েলি বাহিনীর বিমান হামলায় অন্তত ২০ জন ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন। নিহতদের মধ্যে বেশ কয়েকজন শিশু রয়েছে।

দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে আল জাজিরা জানায়, সোমবার স্থানীয় সময় বিকেলে গাজার হামাস অধ্যুষিত উপকূলবর্তী এলাকা থেকে ইসরায়েলের দিকে রকেট হামলা চালানো হয়। এরপর সন্ধ্যার দিকে ইসরায়েলের বিমানবাহিনী গাজার উত্তরাঞ্চলে সিরিজ বিমান হামলা চালায়। এতে ২০ জন নিহত এবং ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে জানায় মন্ত্রণালয়।

jagonews24.com

ইসরায়েলের সামরিক মুখপাত্র লেফটেন্যান্ট কর্নেল জোনাথন কনরিকাস বিবিসিকে বলেছেন, তারা (ইসরায়েলি বাহিনী) গাজায় সামরিক লক্ষ্যবস্তুতে আক্রমণ শুরু করেছে। তিনি জোর দিয়ে বলেছেন, এটা শুরু হয়েছে এবং এরই মধ্যে তিন হামাস জঙ্গিকে ইসরায়েলি বাহিনী হত্যা করেছে।

ইসরায়েলের এই হামলায় ইজ্ আদ-দীন আল-কাসসাম ব্রিগেডের কমান্ডার মোহাম্মদ আবদুল্লাহ ফায়াদ নিহত হয়েছেন বলে হামাস সূত্র বিবিসিকে নিশ্চিত করেছে।

এএএইচ/এমআরএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]