ইসরায়েলি হামলা থেকে বাঁচলেন না গাজার দুই বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকও

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৫:৫৮ পিএম, ১৭ মে ২০২১ | আপডেট: ০৬:০৯ পিএম, ১৭ মে ২০২১
ডা. মুইন আহমদ আল-আলোয়াল ও ডা. আয়মান আবু আল-উফ

অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকায় ইসরায়েলি হামলায় দুই জ্যেষ্ঠ চিকিৎসক নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় নিন্দা জানিয়েছে সেখানকার স্বাস্থ্যকর্মী ও স্বাস্থ্যসেবা সংস্থাগুলো। তাদের মৃত্যু বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের ঘাটতি বাড়াবে বলে জানিয়েছেন তারা। খবর : আল জাজিরার।

নিহতরা হলেন— গাজার আল-শিফা হাসপাতালের অভ্যন্তরীণ মেডিসিনের প্রধান ডা. আয়মান আবু আল-উফ এবং ৬৬ বছর বয়সী সাইকিয়াট্রিক নিউরোলজিস্ট ডা. মুইন আহমদ আল-আলোয়াল।

আল জাজিরার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত শনিবার ভোরে গাজার আল-ওয়েহদা জেলার নিজ বাসায় ছিলেন ডা. আয়মান আবু আল-উফ। এ সময় ইসরায়েলি বাহিনীর ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে তিনিও নিহত হন। এদিকে ওই দিন সকালেই আল-ওয়েহদা জেলায় ইসরায়েলি বাহিনীর বোমা হামলায় নিজ বাড়িতে নিহত হন ডা. মুইন আহমদ আল-আলোয়াল। এই হামলায় কমপক্ষে ৩৩ জন নিহত হয়েছেন।

jagonews24

ডা. আয়মান আবু আল-উফের প্রাক্তন শিক্ষার্থী ডা. ওসায়দ আলসার বলেন, ‘এটা আমার ও গোটা মেডিকেল কমিউনিটির জন্য একটা বড় ধাক্কা। তিনি গাজার সবচেয়ে সিনিয়র অভ্যন্তরীণ মেডিসিন চিকিৎসক ছিলেন। তার মৃত্যুতে মেডিকেল কমিউনিটির অনেক বড় ক্ষতি হয়ে গেল।’

ডা. মুইন আহমদের ভাই মাজেন আল-আলোয়াল আল জাজিরাকে জানান, ‘মিসর ও ফ্রান্সে পড়াশোনা করেছেন তিনি। এছাড়া গাজায় ফেরার আগে তিনি সৌদি আরবে কর্মরত ছিলেন। মৃত্যুর আগে বিশেষায়িত ক্লিনিকে কাজ করছিলেন ডা. মুইন আহমদ।’

বোমা হামলায় আরও আহত হয়েছেন ডা. মুইন আহমদের স্ত্রী ও মেয়ে। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ডা. মুইনের ২৫ বছর বয়সী মেয়ে আয়া মোবাইল ফোনে আল জাজিরাকে জানান, ‘আমি ও আমার মা হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ আছি। কোনো সতর্কতা ছাড়াই তারা আমাদের বাড়িতে বোমা হামলা চালিয়েছে।’

jagonews24

এদিকে সাংবাদিক ইউমনা আল সায়েদ জানিয়েছেন, গাজার আল-শিফা হাসপাতালের সামনে থেকে কয়েক মিটার দূরে একটা গাড়িতে ইসরায়েলের ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় তিনজন নিহত হয়েছেন। হাসপাতালে রোগী রাখার কোনো জায়গা নেই। চিকিৎসা সরঞ্জামাদি শেষ হয়ে গেছে। বারান্দা ও প্রশাসনসহ অন্যান্য বিভাগের সব জায়গা রোগীতে ভর্তি। এছাড়া হাসপাতালে বিদ্যুৎ সংকট ও পানি ঘাটতি দেখা দিয়েছে।

jagonews24

গাজা উপত্যকায় ইসরায়েলি দখলদারদের হামলা অব্যাহত রয়েছে। টানা আট দিন ধরে তাদের বর্বরোচিত হামলায় সোমবার পর্যন্ত ৫৮ শিশুসহ প্রায় ২০০ ফিলিস্তিনি প্রাণ হারিয়েছেন। এদিকে ইসরায়েলি কর্তৃপক্ষ বলছে, গাজার হামলায় এ পর্যন্ত তাদের ১০ জন নিহত হয়েছেন।

আন্তর্জাতিক শিশু কল্যাণ সংস্থা সেভ দ্য চিলড্রেন জানিয়েছে, গাজায় চলমান ইসরায়েলি হামলায় প্রতি ঘণ্টায় তিনটি শিশু আহত হচ্ছে। ইসরায়েলি দখলদারদের টানা বিমান হামলায় এ পর্যন্ত ৩৬৬ শিশুসহ আহত হয়েছেন এক হাজারের বেশি নিরীহ ফিলিস্তিনি।

এমএসএইচ/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]