রানি এলিজাবেথকে দেখে মায়ের কথা মনে পড়ল বাইডেনের

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৪:৫৩ পিএম, ১৪ জুন ২০২১

ব্রিটিশ রানি এলিজাবেথকে দেখে মায়ের কথা মনে পড়ে আবেগে আপ্লুত হলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। তিনদিনের জি-৭ সম্মেলনের শেষদিন রোবরার উইন্ডসর ক্যাসেলে ৯৫ বছর বয়সী রানির সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন বাইডেন ও তার স্ত্রী মার্কিন ফার্স্ট লেডি জিল ট্রেসি বাইডেন।

সাক্ষাৎ শেষে যুক্তরাজ্য ত্যাগ করার সময় বাইডেন সাংবাদিকদের বলেন, রানি এলিজাবেথ অত্যন্ত বিনয়ী। তারা একান্তে দীর্ঘ সময় আলাপ করেছেন।

জো বাইডেন বলেন, রানি এলিজাবেথ তার কাছে অনেক কিছু জানতে চেয়েছেন। রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে আসন্ন বৈঠক নিয়ে জানতে চেয়েছেন এলিজাবেথ, শুনতে চেয়েছেন চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের বিষয়েও।

৭৮ বছর বয়সী বাইডেন বলেন, রানি এলিজাবেথের সঙ্গে আলাপকালে আমার মায়ের কথা মনে পড়ে গেছে।

তিনি জানান, সাক্ষাতের সময় রানি এলিজাবেথ একটি উজ্জ্বল গোলাপী রঙের পোশাক পরে আসেন। পরে এলিজাবেথ তাকে এবং ফার্স্ট লেডি জিলকে সাদরে গ্রহণ করেন। গার্ড অব অনার দেওয়া হয় তাদের। এসময় মার্কিন জাতীয় সংগীতও বাজানো হয়। পরে তারা একসঙ্গে চা পান করেন।

স্ত্রীসহ উইন্ডসর ক্যাসেলে রানি এলিজাবেথের সঙ্গে সাক্ষাৎ করা চতুর্থ মার্কিন প্রেসিডেন্ট হলেন বাইডেন। এর আগে ২০১৮ সালে ডোনাল্ড ট্রাম্প, ২০১৬ সালে বারাক ওবামা, ২০০৮ সালে জর্জ ডব্লিউ বুশ ফাস্র্ট লেডিসহ রানির সাথে তার বাসভবনে দেখা করেছেন। এছাড়া রানির সঙ্গে সরাসরি সাক্ষাৎ করা ১৩তম মার্কিন প্রেসিডেন্ট হলেন বাইডেন।

এ সাক্ষাতে রানি এলিজাবেথকে যুক্তরাষ্ট্র সফরের আমন্ত্রণ জানিয়েছেন জো বাইডেন। এর আগে ব্রিটিশ রানির সঙ্গে বাইডেনের প্রথম সাক্ষাৎ হয়েছিল ১৯৮২ সালে, যখন জো ছিলেন ডেলাওয়্যারের সিনেটর।

সূত্র: এনডিটিভি

এএমকে/কেএএ/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]