চীন-ইন্দোনেশিয়ায় শক্তিশালী ভূমিকম্প, সুনামির শঙ্কা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৪:০৯ পিএম, ১৬ জুন ২০২১ | আপডেট: ০৪:১৯ পিএম, ১৬ জুন ২০২১

চীন ও ইন্দোনেশিয়ায় বুধবার শক্তিশালী ভূমিকম্প আঘাত হেনেছে। এর জেরে ইন্দোনেশিয়া উপকূলে সুনামির আশঙ্কা তৈরি হয়েছে বলে জানা গেছে।

মার্কিন ভূতাত্ত্বিক জরিপ সংস্থা ইউএসজিএসের তথ্যমতে, বুধবার বাংলাদেশ সময় ২টা ৪৮ মিনিটে চীনের কিংহাই প্রদেশের উত্তরাঞ্চলে আঘাত হেনেছে ৫ দশমিক ৪ মাত্রার ভূমিকম্প। এর উৎপত্তিস্থল ভূপৃষ্ঠ থেকে ১০ কিলোমিটার গভীরে।

তবে চীনের আর্থকোয়াক নেটওয়ার্ক সেন্টার বলছে, দেশটিতে আঘাত হানা ভূকম্পনের মাত্রা ছিল ৫ দশমিক ৮।

এ ঘটনায় তাৎক্ষণিকভাবে কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি বলে জানিয়েছে চীনা সংবাদমাধ্যম সিজিটিএন।

এদিকে, ইন্দোনেশিয়ার আবহাওয়া, জলবায়ুবিদ্যা এবং ভূ-প্রকৌশল সংস্থা বিএমকেজি জানিয়েছে, বুধবার দেশটির মোলাক্কাস দ্বীপপুঞ্জের কাছে ৬ দশমিক ১ মাত্রার শক্তিশালী ভূমিকম্প হয়েছে। এর প্রভাবে সুনামির শঙ্কা তৈরি হয়েছে বলে সতর্ক করেছে সংস্থাটি।

তবে ইউএসজিএসের হিসাবে, বাংলাদেশ সময় সকাল ১০টা ৪৩ মিনিটে ইন্দোনেশিয়ায় আঘাত হানা ভূকম্পনের মাত্রা ছিল ৫ দশমিক ৮।

jagonews24

এটির উৎপত্তিস্থলও ছিল ভূপৃষ্ঠ থেকে ১০ কিলোমিটার গভীরে এবং তাৎক্ষণিকভাবে কোনো ক্ষয়ক্ষতির খবর পাওয়া যায়নি।

এক সতর্কবার্তায় ইন্দোনেশিয়ার সমুদ্রতীরবর্তী এলাকার জনগণকে, বিশেষ করে সেরাম দ্বীপের বাসিন্দাদের উঁচু স্থানে আশ্রয় নিতে বলেছে বিএমকেজি।

ইন্দোনেশীয় সংস্থাটি প্রথমে বলেছিল, ভূমিকম্পের পর আফটারশকের শঙ্কা থাকলেও সুনামির সম্ভাবনা নেই। তবে পরে জানানো হয়, সুনামি ঢেউয়ের প্রভাবে পানির নিচে ভূমিধসের আশঙ্কা তৈরি হয়েছে।

এদিন ৫ দশমিক ৫ মাত্রার আরেকটি ভূমিকম্প ভারত মহাসাগরের মাঝামাঝি আঘাত হেনেছে বলে জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের ভূতাত্ত্বিক জরিপ সংস্থা।

সূত্র: রয়টার্স, সিজিটিএন

কেএএ/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]