মড়ার ওপর খাঁড়ার ঘা: পাকিস্তানে জ্বালানি তেলের দাম বাড়াল সরকার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৫:৪২ পিএম, ১৬ জুন ২০২১ | আপডেট: ০৫:৪৬ পিএম, ১৬ জুন ২০২১

মূল্যস্ফীতির চাপে ন্যুব্জ পাকিস্তানিদের পকেট আরেকবার কাটার ব্যবস্থা করল ইমরান খানের সরকার। রাজস্ব বাড়ানোর দাবি করে দেশটিতে প্রায় সব ধরনের জ্বালানি তেলের দাম আরও এক দফা বাড়ানো হয়েছে।

পাকিস্তানি টিভি চ্যানেল জিও নিউজ জানিয়েছে, গত মঙ্গলবার পাকিস্তানে পেট্রলের দাম প্রতি লিটারে ২ দশমিক ১৩ রুপি, হাইস্পিড ডিজেলের দাম ১ দশমিক ৭৯ রুপি, কেরোসিনের দাম ১ দশমিক ৮৯ রুপি এবং হালকা ডিজেলের দাম ২ দশমিক ০৩ রুপি বাড়ানোর অনুমোদন দিয়েছে দেশটির অর্থ মন্ত্রণালয়।

এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, দেশটিতে এখন থেকে পেট্রলের জন্য প্রতি লিটারে গুনতে হবে ১১০ দশমিক ৬৯ রুপি, হাইস্পিড ডিজেলে ১১২ দশমিক ৫৫ রুপি, কেরোসিনে ৮১ দশমিক ৮৯ রুপি ও হালকা ডিজেলের দাম হবে প্রতি লিটার ৭৯ দশমিক ৬৮ রুপি।

অবশ্য গত সপ্তাহেই পাকিস্তানে জ্বালানি তেলের দাম বাড়ানোর ইঙ্গিত দিয়েছিলেন দেশটির অর্থমন্ত্রী শওকত তারিন।

Pakistan-1

‘নয়া পাকিস্তান’ কর্মসূচির বিষয়ে তিনি সাংবাদিকদের জানিয়েছিলেন, আগামী অর্থবছরে ৬০০ বিলিয়ন রুপি পেট্রোলিয়াম শুল্ক আদায়ের পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে। তাই এই শুল্কের হার বাড়িয়ে প্রতি লিটারে ২০ থেকে ২৫ রুপি পর্যন্ত করা হতে পারে, যা বর্তমানে লিটারপ্রতি পাঁচ রুপি করে নেয়া হচ্ছে।

এছাড়া মন্ত্রী আরও জানিয়েছেন, সৌদি আরব পাকিস্তানকে বাকিতে তেল দিতে রাজি হয়েছে। তবে এভাবে ঠিক কী পরিমাণ তেল পাওয়া যাবে তা এখনো নিশ্চিত নয়।

উচ্চ বেকারত্বের হার, দারিদ্র্য ও মূল্যস্ফীতির জেরে পাকিস্তানের অর্থনীতি ব্যাপক চাপে রয়েছে। এ পরিস্থিতিতে বাজেটের ঘাটতি পূরণে আগামী অর্থবছরেও প্রায় ১৬ বিলিয়ন মার্কিন ডলার বৈদেশিক ঋণ নেয়ার পরিকল্পনা করছে পাকিস্তান সরকার।

সূত্র: দ্য ইকোনমিক টাইমস

কেএএ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]